শীর্ষ খবর

সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত রাখতে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এখনও যারা সুন্দরবনে দস্যুতা করার চেষ্টা করছেন, তারা সাবধান হোন। আমরা কাউকেই ছাড় দেবো না। নেপথ্যে যেসব গডফাদার রয়েছে, তাদেরও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
Home-Minister.jpg
১ নভেম্বর ২০১৯, বাগেরহাটের শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণার বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ছবি: স্টার

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এখনও যারা সুন্দরবনে দস্যুতা করার চেষ্টা করছেন, তারা সাবধান হোন। আমরা কাউকেই ছাড় দেবো না। নেপথ্যে যেসব গডফাদার রয়েছে, তাদেরও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজ (১ নভেম্বর) দুপুরে সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণার বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সারা দিয়ে যারা বিপথগামী পথ থেকে ফিরে আসছেন, তাদের প্রতি আমাদের সু-দৃষ্টি রয়েছে। তাদের স্বাভাবিক জীবন-যাপনের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”

এর আগে, সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত করতে র‌্যাবের ভূমিকা ও দস্যুদের আত্মসমর্পণের ওপর নির্মিত চলচ্চিত্র ‘অপারেশন সুন্দরবন’ এর ডিজিটাল লোগো ও মোড়ক উন্মোচন করেন মন্ত্রী। এসময় চলচ্চিত্রের পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আত্মসমর্পণকৃত জলদস্যুদের মধ্যে উপহার সামগ্রী তুলে দেন।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাবের) আয়োজনে বাগেরহাটের শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি শামসুল হক টুকু ও সদস্য কুজেন্দ্র কুমার ত্রিপুরা, বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেন, বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ড. মো. মাইনুর রহমান চৌধুরী, র‌্যাবের মহাপরিচালক ড. বেনজির আহমেদ।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Comments