খেলা

নিউজিল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়ার পর বাংলাদেশ?

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের মাটি থেকে জয় নিয়ে ফিরতে পেরেছে এখন পর্যন্ত মোটে তিনটি দল। সেই তালিকায় চতুর্থ নামটি হতে পারে বাংলাদেশের। কেবল তা-ই নয়, ক্রিকেটের সবচেয়ে আধুনিক সংস্করণে উপমহাদেশের প্রথম দল হিসেবে ভারতকে তাদের মাটিতেই সিরিজ হারানোর হাতছানি মাহমুদউল্লাহদের সামনে।
mahmudullah
ছবি: বিসিবি

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের মাটি থেকে জয় নিয়ে ফিরতে পেরেছে এখন পর্যন্ত মোটে তিনটি দল। সেই তালিকায় চতুর্থ নামটি হতে পারে বাংলাদেশের। কেবল তা-ই নয়, ক্রিকেটের সবচেয়ে আধুনিক সংস্করণে উপমহাদেশের প্রথম দল হিসেবে ভারতকে তাদের মাটিতেই সিরিজ হারানোর হাতছানি মাহমুদউল্লাহদের সামনে।

দিল্লিতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৭ উইকেটে জিতে ভারতের বিপক্ষে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ম্যাচে জিতলেই সিরিজ নিশ্চিত হবে রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যদের।

এর আগে ঘরের মাঠে মোট ১৩টি টি-টোয়েন্টি সিরিজ (দুই অথবা তিন ম্যাচের) খেলেছে ভারত। এর মাত্র তিনটিতে হেরেছে তারা। ভারত জয় করা দলগুলো হলো যথাক্রমে- নিউজিল্যান্ড (২০১২ সাল, দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০), দক্ষিণ আফ্রিকা (২০১৫ সাল, তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০) ও অস্ট্রেলিয়া (২০১৯ সাল, দুই ম্যাচের সিরিজে ২-০)। ড্র হয়েছে পাঁচটি সিরিজ। বাকি ছয়টিতে জিতেছে ভারতীয়রা।

afif and naim and aminul
ছবি: বিসিবি

উপমহাদেশের দেশগুলোর মধ্যে ভারত সফরে সর্বোচ্চ তিনটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে শ্রীলঙ্কা। কিন্তু কোনোবারই সিরিজ বগলদাবা করার স্বাদ পায়নি তারা। ২০০৯ সালে দুই ম্যাচের সিরিজে ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছিল লঙ্কানরা। এরপর ২০১৬ সালে তিন ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল দ্বীপদেশটি। আর ২০১৭ সালে শেষবার ভারতের কাছে স্রেফ উড়ে যায় শ্রীলঙ্কা। স্বাগতিকরা তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে নিয়েছিল ৩-০ ব্যবধানে।

ভারতের মাটিতে এই সংস্করণের সিরিজ পাকিস্তান খেলেছিল একবারই, ২০১২ সালে। দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে ৫ উইকেটে জেতার পর দ্বিতীয়টিতে ১১ রানে হেরেছিল দলটি। সিরিজ শেষ হয়েছিল ১-১ সমতায়।

নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে এবারই প্রথম ভারতে পূর্ণাঙ্গ সফরে গিয়েছে বাংলাদেশ। তবে মাঠের লড়াই শুরু আগে বিপর্যস্ত ছিল লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। বেতন বাড়ানোসহ বিভিন্ন দাবিতে ক্রিকেটারদের ধর্মঘট এবং দলের সেরা তারকা সাকিব আল হাসান আইসিসির নিষেধাজ্ঞা পাওয়ায় ভারতের উদ্দেশে রওয়ানা হওয়ার আগে টালমাটাল ছিল দেশের ক্রিকেট অঙ্গন।

domingo and mosaddek
ছবি: বিসিবি

দিল্লিতে প্রথম ম্যাচে জিতে অবশ্য সেসব প্রতিকূলতা কাটিয়ে ওঠার ছাপ রেখেছে সাকিব-তামিম ইকবাল-মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনবিহীন বাংলাদেশ। সেই সঙ্গে ক্রিকেটাররা পেয়েছেন আত্মবিশ্বাসের জোগান। নিজেদের সামর্থ্য ও যোগ্যতার ওপর আস্থা রাখার জ্বালানীও পেয়েছেন তারা।

এখন ইতিহাস গড়ার অপেক্ষার পালা বাংলাদেশের, অপেক্ষা ভারতকে সিরিজ হারিয়ে নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার পাশে নিজেদের নাম লেখানোর। সে লড়াইয়ে নামার আগে বাংলাদেশের নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ মনস্তাত্ত্বিকভাবে এগিয়ে রাখছেন নিজেদেরই।

আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘অবশ্যই এটা দুর্দান্ত সুযোগ (সিরিজ জেতার)। যখন আপনি প্রথম ম্যাচে জিতে এগিয়ে থাকবেন, তখন সবসময়ই ভালো সুযোগ (থাকে)। ছেলেরাও উদ্যমী হয়ে আছে ভালো কিছু করতে। আশা করি, আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) ভালো কিছু করে দেখাতে পারব।’

Comments