পাসপোর্টের জন্য আঙুলের ছাপ নিতেই ধরা পড়ল রোহিঙ্গা নারী

মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে আটক হয়েছেন এক রোহিঙ্গা নারী। আজ বুধবার দুপুরে মানিকগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আঙুলের ছাপ দেওয়ার সময় রোহিঙ্গা তালিকায় তার নাম ও ছবি উঠলে তিনি ধরা পড়েন।
মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে গিয়ে আটক রোহিঙ্গা নারী আসমা। ছবি: সংগৃহীত

মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে আটক হয়েছেন এক রোহিঙ্গা নারী। আজ বুধবার দুপুরে মানিকগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আঙুলের ছাপ দেওয়ার সময় রোহিঙ্গা তালিকায় তার নাম ও ছবি উঠলে তিনি ধরা পড়েন।

পরে তাকে মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। সাটুরিয়া উপজেলার দিঘলীয়া ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা এক নারীর নামে নেওয়া ভুয়া নাগরিকত্বের সনদ ব্যবহার করে পাসপোর্ট নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ওই রোহিঙ্গা নারী।

মানিকগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক মাকসুদুর রহমান জানান, বুধবার বেলা বারোটার দিকে সাটুরিয়ার উপজেলার রেজাউল করিম স্ত্রী পরিচয়ে পাসপোর্ট করাতে গিয়েছিলেন আসমা। তিনি ২০১৭ সালের ১০ অক্টোবর চট্টগ্রামের টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিবন্ধিত হন।

মাকসুদুর রহমান জানান, ওই রোহিঙ্গা নারী মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার দিঘলীয়া ইউনিয়নের বেংরোয়া গ্রামের আব্দুল হাইয়ের মেয়ে জান্নাত আক্তারের নামে নেওয়া নাগরিকত্বের সনদ নিয়ে পাসপোর্ট ফরম দাখিল করেন। কথা বলে সন্দেহ হলে তিনি তাৎক্ষনিকভাবে রোহিঙ্গা শরণার্থী নিবন্ধন সার্ভার ঘেঁটে নিশ্চিত হন যে, তিনি প্রকৃতপক্ষে রোহিঙ্গা। তার নাম আসমা।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, রোহিঙ্গা ওই নারী দুই সপ্তাহ আগে চট্টগ্রাম থেকে রেজাউল করিমের সাভারের বাসায় যান। বুধবার তিনি ওই রোহিঙ্গা নারী, তার প্রকৃত স্ত্রী ও এক কন্যাসহ মানিকগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে যান।

তিনি বলেন, এই কাজে সহযোগিতার অপরাধে রেজাউল করিম এবং পাসপোর্ট ফরমে সত্যায়ন করার অপরাধে  মানিকগঞ্জ জজকোর্টের আইনজীবী মো. মনোয়ার হোসাইনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

পরিচয় আড়াল করে অন্যের পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট করার চেষ্টার অপরাধে প্রচলিত আইনে ওই রোহিঙ্গা নারীর বিরুদ্ধে মামলা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) সহকারী পুলিশ সুপার আমিদুর রহমান সিদ্দিকী।

Comments

The Daily Star  | English

Is Raushan's political career coming to an end?

With Raushan Ershad not participating in the January 7 parliamentary election, questions have arisen whether the 27-year political career of the Jatiya Party chief patron and opposition leader is coming to an end

1h ago