৭০০ ম্যাচের পর মেসি-রোনালদোর তুলনামূলক চিত্র

আগের দিন চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে বার্সেলোনার জার্সিতে নিজের ৭০০তম ম্যাচ খেলেছেন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। নিত্যনতুন রেকর্ড গড়ে এক যুগেরও বেশি সময়ে তিনি অর্জন করেছেন অনেক কিছুই। ছাড়িয়ে গিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে। ৭০০তম ম্যাচের পর রোনালদোর চেয়ে ১০৯টি গোল বেশি করেছেন তিনি। শিরোপাও এ সময়ে রোনালদোর চেয়ে ১৩টি বেশি জিতেছেন তিনি।
ছবি: এএফপি

আগের দিন চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে বার্সেলোনার জার্সিতে নিজের ৭০০তম ম্যাচ খেলেছেন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। নিত্যনতুন রেকর্ড গড়ে এক যুগেরও বেশি সময়ে তিনি অর্জন করেছেন অনেক কিছুই। ছাড়িয়ে গিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে। ৭০০তম ম্যাচের পর রোনালদোর চেয়ে ১০৯টি গোল বেশি করেছেন তিনি। শিরোপাও এ সময়ে রোনালদোর চেয়ে ১৩টি বেশি জিতেছেন তিনি।

ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ৩-১ গোলে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। ম্যাচে নিজে একটি গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে দুটি গোলও করিয়েছেন মেসি। ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সবচেয়ে বেশি প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গোল করার রেকর্ডও গড়েছেন তিনি। এ নিয়ে মোট ৩৪টি প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গোল করলেন এ জীবন্ত কিংবদন্তি। এতদিন রোনালদো ও রাউল গঞ্জালেজের সমান ৩৩টি প্রতিপক্ষের সঙ্গে গোল করে যৌথভাবে শীর্ষ অবস্থানে ছিলেন এ আর্জেন্টাইন।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী হলেও মেসির চেয়ে বয়সে দুই বছরের বড় রোনালদো। তাই মেসির ঢের আগেই ক্লাবের হয়ে ৭০০তম ম্যাচ খেলেছেন এ পর্তুগিজ। ২০১৭ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি মাইলফলক স্পর্শ করেছিলেন রোনালদো। ৭০০তম ম্যাচ পর্যন্ত এ দুই তারকার অর্জনের তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরা হলো:

গোল

ক্যারিয়ারের পুরো সময়টা মেসি বার্সেলোনার হয়ে খেললেও এখন পর্যন্ত চারটি ক্লাবের হয়ে খেলেছেন রোনালদো। যদিও জুভেন্টাসে যোগ দেওয়ার আগেই ৭০০তম ম্যাচ খেলেছেন রোনালদো। সে সময় পর্যন্ত গোল করেছিলেন ৫০৪টি। অন্যদিকে ৭০০ ম্যাচ শেষে মেসির গোল সংখ্যা ৬১৩টি।

অ্যাসিস্ট

৭০০ ম্যাচ পর্যন্ত সতীর্থকে দিয়ে গোল করানোর ক্ষেত্রেও অনেক এগিয়ে আছেন মেসি। এ সময়ে তিনি অ্যাসিস্ট করেছেন ২৩৭টি। অন্যদিকে, রোনালদো করেছেন ১৮৫টি। পর্তুগিজ প্রতিপক্ষের চেয়ে গোল করানোয় অবদান রাখার ক্ষেত্রে মেসির অবদান ৫২টি বেশি।

হ্যাটট্রিক

হ্যাটট্রিকেও এগিয়ে রয়েছেন মেসি। ক্লাবের হয়ে মেসির মোট হ্যাটট্রিক সংখ্যা ৪৬টি। আর ৭০০ ম্যাচ শেষে রোনালদোর হ্যাটট্রিক ছিল ৪১টি।

শিরোপা

বার্সেলোনার হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৪টি শিরোপা জিতেছেন মেসি। যার মধ্যে রয়েছে ১০টি লা লিগা শিরোপা। আছে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপাও। এছাড়া ছয়টি কোপা দেল রে, আটটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, তিনটি সুপার কাপ ও তিনটি ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপও।

অন্যদিকে, ৭০০ ম্যাচ শেষে রোনালদো জিতেছিলেন ২১টি শিরোপা। তিনটি ভিন্ন ক্লাবের হয়ে তার এসব অর্জন ছিল। একটি পর্তুগিজ সুপার কাপ, তিনটি প্রিমিয়ার লিগ, একটি এফএ কাপ, একটি কমিউনিটি শিল্ড, একটি লা লিগা, তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, তিনটি ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ, দুটি কোপা দেল রে, দুটি স্প্যানিশ সুপার কাপ ও দুটি উয়েফা সুপার কাপ জিতেছিলেন তিনি।

ব্যালন ডি'অর

দুই তারকাই এখন পর্যন্ত রেকর্ড পাঁচটি করে ব্যালন ডি'অর জিতেছেন। তবে ৭০০তম ম্যাচের আগে রোনালদোর চেয়ে একটি বেশি ব্যলন ডি'অর জিতেছেন মেসি।

তুলনামূলক চিত্রে, ৭০০তম ম্যাচ পর্যন্ত মেসি বেশ খানিকটা এগিয়ে থাকলেও পরবর্তীতে রোনালদো অর্জন করেছেন আরও অনেক কিছু। ৭০০তম ম্যাচের পর আরও ১১৯টি ম্যাচ খেলেছেন রোনালদো। মোট ৮১৯টি ম্যাচে এ পর্তুগিজ তারকার গোল সংখ্যা বর্তমানে ৬০৭টি। অ্যাসিস্ট বেড়ে হয়েছে মোট ২১৯টি। তার মোট হ্যাটট্রিক সংখ্যা এখন ৪৬টি। শিরোপার সংখ্যাও বেড়েছে তার। এ পর্যন্ত ২৪টি শিরোপা জিতেছেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English
Awami League's peace rally

Relatives in UZ Polls: AL chief’s directive for MPs largely unheeded

Awami League lawmakers’ urge to tighten their grip on the grassroots seems to be prevailing over the party president’s directive to have their family members and close relatives withdraw from the upazila parishad polls.

7h ago