খেলা

সনু নিগমের কণ্ঠে বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর গান

নিজের একটি গান দিয়ে পরিবেশনা শুরুর পরই ডি. এল রায়ের ‘ধনে ধান্যে পুষ্পেভরা’ গান গেয়ে বাংলাদেশকে ভালোবাসা জানান ভারতের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও এসময় ঠোঁট মেলাতে দেখা যায়। এরপরই সনু গেয়ে শোনান ‘শোন একটি মুজিবুরের কণ্ঠ থেকে লক্ষ মুজিবরের কণ্ঠস্বরের ধ্বনি প্রতিধ্বনি।’ বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর গানে উপস্থিত দর্শকদের মধ্যেও পড়ে ব্যাপক সাড়া।
Sonu Nigam
ছবি: বিসিবি

নিজের একটি গান দিয়ে পরিবেশনা শুরুর পরই ডি. এল রায়ের ‘ধনে ধান্যে পুষ্পেভরা’ গান গেয়ে বাংলাদেশকে ভালোবাসা জানান ভারতের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও এসময় ঠোঁট মেলাতে দেখা যায়। এরপরই সনু গেয়ে শোনান ‘শোন একটি মুজিবুরের কণ্ঠ থেকে লক্ষ মুজিবরের কণ্ঠস্বরের ধ্বনি প্রতিধ্বনি।’ বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর গানে উপস্থিত দর্শকদের মধ্যেও পড়ে ব্যাপক সাড়া।

আসছে বছর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী মাথায় রেখে এবার বিপিএলের নামও দেওয়া হয়েছে বঙ্গবন্ধুর নামে। মঞ্চে উঠেই উপমহাদেশের প্রখ্যাত এই নেতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান সনু নিগম।

রোমান্টিক গানের জন্য ভারত ও বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া সনু তার জনপ্রিয় গানের পাশাপাশি পারফরম্যান্সে একাধিকবার নিয়ে আসেন বঙ্গবন্ধুর প্রসঙ্গ।

প্রয়াত নেতার কথা স্মরণ করে তাকে নিয়ে গৌরিপ্রসন্ন মজুমদারের গানটি ভাঙা বাংলাতেই ধরেন তিনি। এ সময় তালি দিতে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রীকেও।

সনু নিগমের গানে উপস্থিত দর্শকদের মধ্যেও পড়ে তুমুল সাড়া। বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু প্রসঙ্গ এলেই দর্শকরা তুমুল করতালিতে কুর্নিশ জানান এই শিল্পীকে। এরপর নিজের বেশ কয়েকটি গান একে একে পরিবেশন করেন তিনি। 'কাল হো না হো' গান দিয়ে ঘন্টাখানেকের পরিবেশনা শেষে বিদায় নেন সনু।  

আগের তিন আসরে নানা কারণে উদ্বোধনী আয়োজন না থাকলেও এবার বিপিএলে ফেরানো হয় এই অনুষ্ঠান। এতে ভারত ও বাংলাদেশের খ্যাতনামা শিল্পীদের জানানো হয়েছে আমন্ত্রণ। সনু নিগমের পরই মঞ্চে আসবেন কৈলাশ খের। রাতে পারফর্ম করবেন বলিউড তারকা সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ।

কনসার্ট চলার সময়ই বলিউডের এই দুই তারকা দেখা করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। 

Comments