খেলা

ফেরার ম্যাচ যেমন হলো মাশরাফির

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা ১৫৯ দিন পর ফিরেছিলেন যেকোনো পর্যায়ের ক্রিকেটে। ফেরার ম্যাচে দল হারলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে খুব একটা মন্দ করেননি তিনি। ব্যাট হাতে গুরুত্বপূর্ণ রান এসেছে। মূল যে কাজ সেই বোলিংয়ে মাশরাফিকে দেখা গেছে আগের মতই বুদ্ধি খাটিয়ে আঁটসাঁট বোলিংয়ের ভূমিকায়। তবে উইকেট পাননি তিনি, শেষ করেননি চার ওভারের কোটাও।
Mashrafe Mortaza
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা ১৫৯ দিন পর ফিরেছিলেন যেকোনো পর্যায়ের ক্রিকেটে। ফেরার ম্যাচে দল হারলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে খুব একটা মন্দ করেননি তিনি। ব্যাট হাতে গুরুত্বপূর্ণ রান এসেছে। মূল যে কাজ সেই বোলিংয়ে মাশরাফিকে দেখা গেছে আগের মতই বুদ্ধি খাটিয়ে আঁটসাঁট বোলিংয়ের ভূমিকায়। তবে উইকেট পাননি তিনি, শেষ করেননি চার ওভারের কোটাও।

বৃহস্পতিবার আগে ব্যাটিং পেয়ে মাশরাফির দল ঢাকা প্লাটুন খুব বেশি রান আনতে পারেনি। ব্যাটিং ব্যর্থতায় তারা থামে ১৩৪ রানে। যাতে দুই ছক্কায় অপরাজিত ১৮ করে অবদান মাশরাফির।

ব্যাট করার জন্য বেশ ভালো উইকেটে এই অল্প রান আটকাতে প্রথম ওভারেই বল হাতে নেন মাশরাফি। পাঁচ মাস কোন রকমের ক্রিকেট না খেলা, অনুশীলনেও অনুপস্থিত থাকার প্রভাব খুব একটা পড়েনি তার বলে। প্রথম ওভারে জায়গায় বল করে দেন মাত্র ৪ রান। প্রথম স্পেলে ছিল ওই এক ওভারই।

চতুর্থ ওভারে আবার ফিরে এক বাউন্ডারি খেয়ে দেন ৬ রান। আবারও এক ওভারের স্পেল শেষ করে মাশরাফি ফেরেন দ্বাদশ ওভারে। আবার তার বল থেকে এক চারে ৮ রান তুলে নেন শোয়েব মালিক আর হজরতুল্লাহ জাজাই।

মাশরাফি আর অফ স্পিনার মেহেদী হাসান ভাল করলেও বাকিরা ছিলেন মলিন। রান তাড়ায় তাই কোন বেগ পেতে হয়নি রাজশাহী রয়্যালসের। ১০ বল বাকি রেখে তারা জিতে যায় ৯ উইকেটে।  রাজশাহীর অনায়াসে জেতার পরিস্থিতি তৈরি হলে নিজের শেষ ওভারটি আর করতে পারেননি ঢাকার অধিনায়ক।

Comments