টেকনিক-বেসিক নয়, লিটনের কাছে পারফরম্যান্সই সব

তার বেসিক ও টেকনিক নিয়ে সন্দেহ নেই ঘোরতর নিন্দুকেরও। টেকনিক্যালি নিঃসন্দেহে দেশের সবচেয়ে সেরা ব্যাটসম্যান তিনি। তার ব্যাটিং দেখে চোখ জুড়ায় না এমন ক্রিকেটপ্রেমী পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু প্রতিভার কতটুকু কাজে লাগাতে পেরেছেন লিটন কুমার দাস? মাঝেমধ্যেই এমন সব শট খেলে আউট হয়েছেন যা দৃষ্টিকটু ঠেকেছে সবার কাছে। নানা প্রশ্নও উঠেছে। তাই খুব ভালো করেই লিটন জেনে গিয়েছেন, টেকনিক নয়, আসল কাজটা হলো পারফরম্যান্স।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

তার বেসিক ও টেকনিক নিয়ে সন্দেহ নেই ঘোরতর নিন্দুকেরও। টেকনিক্যালি নিঃসন্দেহে দেশের সবচেয়ে সেরা ব্যাটসম্যান তিনি। তার ব্যাটিং দেখে চোখ জুড়ায় না এমন ক্রিকেটপ্রেমী পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু প্রতিভার কতটুকু কাজে লাগাতে পেরেছেন লিটন কুমার দাস? মাঝেমধ্যেই এমন সব শট খেলে আউট হয়েছেন যা দৃষ্টিকটু ঠেকেছে সবার কাছে। নানা প্রশ্নও উঠেছে। তাই খুব ভালো করেই লিটন জেনে গিয়েছেন, টেকনিক নয়, আসল কাজটা হলো পারফরম্যান্স।

আর সে কারণে টেকনিক-বেসিক নিয়ে না ভেবে পারফরম্যান্স করার দিকেই মনোযোগ দিচ্ছেন লিটন। সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে বেশ কাঠখোট্টা উত্তরও দিলেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান, ‘টেকনিক, বেসিক এত কিছু না। পারফর্ম করলে সব ঠিক। পারফর্ম না করতে পারলে আমি কি খেলব? খেলব তো না। আপনি কি টেকনিক নিয়েই প্রত্যাশা করেন যে লিটনের টেকনিক ভালো, তাই তাকে প্রতি ম্যাচে খেলাব? তা তো করেন না। চিন্তা করেন পারফর্ম কবে করবে। আমি ওই চিন্তাই করি। টেকনিক একটা জায়গায় থাকবে, পারফরম্যান্সটাই মূল।’

উইকেটে নেমে যে আগ্রাসী মেজাজে ব্যাটিং করেন লিটন তা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের জন্য বেশ উপযোগী। বিশেষ করে বাংলাদেশে হার্ড-হিটার ব্যাটসম্যানের খরা থাকায় তার উপর প্রত্যাশাটাও থাকে বেশি। দর্শকরা বিনোদিত হন। কিন্তু বিপিএলে সে অর্থে সফল নন তিনি। রাজশাহী রয়্যালসের হয়ে অবশ্য এবার প্রথম দুই ম্যাচে রান পাওয়ায় অনেকেই ভেবেছেন, তিনি যেন ভিন্ন পণ করেই নেমেছেন। পুরনো সব দায় যেন পূরণ করে দেবেন এবার। কিন্তু এমন প্রসঙ্গে টেনে আনায় কিছুটা বিরক্ত লিটন। পুরনো সময়ের কথা ভাবেনই না তিনি, ‘আমি তো পেছনের জিনিস নিয়ে চিন্তাই করছি না। আপনারাই (সাংবাদিক) পেছনের জিনিস নিয়ে আমাকে চিন্তা করাচ্ছেন।’

তবে বড় ইনিংস খেলার স্বপ্ন যে লিটন দেখছেন না এমনটা নয়। যখন যে পর্যায়েই খেলেন না কেন, বড় ইনিংস খেলার লক্ষ্য নিয়েই নামেন বলে জানালেন তিনি, ‘বড় ইনিংসের লক্ষ্য তো সবসময়ই সেট করা থাকে। টি-টোয়েন্টি খেলাটা এমন যে শুরুতে ব্যাটিং করলে একটা অবস্থা থাকে। টার্গেট বড় হলে অবস্থা এক রকম থাকে, টার্গেট ছোট হলে অবস্থা আরেক রকম থাকে। যদি সুযোগ হয় বড় ইনিংস খেলার, আমি চাচ্ছি না যে একশই মারতে হবে, দলের জন্য যেটুকু করার, সেটা করতে পারলেই আমি খুশি।’

Comments

The Daily Star  | English

Signal 7 at Payra, Mongla as Cyclone Remal forms over Bay

Cox’s Bazar, Ctg maritime ports asked to hoist Signal 6

2h ago