খেলা

সিলেটের উইকেটে দুই রকম গতি দেখছেন বোপারা

দারুণ শুরুর পর দ্রুত উইকেট হারিয়ে এক পর্যায়ে পথ হারাতে বসেছিল রাজশাহী রয়্যালস। বড় রান পাওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছিল শঙ্কা। সেখান থেকে ২৯ বলে ৫০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে রবি বোপারা দলকে পাইয়ে দেন চ্যালেঞ্জিং পূঁজি। মূলত তার এই ব্যাটিংই গড়ে দেয় ম্যাচের পার্থক্য। ম্যাচ জেতানো এই অলরাউন্ডার পরে বললেন সিলেটের উইকেটে এমন ইনিংস খেলা ছিল ভীষণ কঠিন।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

দারুণ শুরুর পর দ্রুত উইকেট হারিয়ে এক পর্যায়ে পথ হারাতে বসেছিল রাজশাহী রয়্যালস। বড় রান পাওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছিল শঙ্কা। সেখান থেকে ২৯ বলে ৫০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে রবি বোপারা দলকে পাইয়ে দেন চ্যালেঞ্জিং পূঁজি। মূলত তার এই ব্যাটিংই গড়ে দেয় ম্যাচের পার্থক্য। ম্যাচ জেতানো এই অলরাউন্ডার পরে বললেন সিলেটের উইকেটে এমন ইনিংস খেলা ছিল ভীষণ কঠিন।

কয়েকমাস আগে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের পুরো মাঠে চলে সংস্কার কাজ। অনেকদিন খেলা ছিল বন্ধ। এবার বিপিএল দিয়েই এই মাঠে ফিরেছে ক্রিকেট।

উইকেটের আচরণ নিয়ে তাই ক্রিকেটারদের একটু সংশয় ছিল। বৃহস্পতিবার প্রথম ম্যাচে আগে ব্যাট করে রাজশাহী তুলে ১৭৯ রান, জবাবে ২০ ওভার খেলেও রংপুর রেঞ্জার্স করতে পারে ১৪৯ রান। রাজশাহীর বড় রানের নায়ক ছিলেন বোপারা। মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদের পিটিয়ে ৪ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ফিফটি করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

তার ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল উইকেট বেশ সহজ। কিন্তু মাঠে গিয়ে প্রথম ১০-১৫ বল বেশ কঠিন ছিল মানিয়ে নেওয়া, ‘ব্যাটসম্যানদের জন্য অনুকূলের উইকেট? একদম না, আমার তা মনে হয় না। এটা (উইকেট) একটু কঠিনই। কিছু বল থেমে আসছে, কিছু বল স্কিড করছে। প্রথম ১০-১৫ বল ব্যাট করা খুব কঠিন এই উইকেটে। শুরুতে  থিতু হতে হবে, পরে টানা যাবে। কিন্তু মাঝে মাঝে এখানে পরিকল্পনা গোলমাল হয়ে যাচ্ছে। শোয়েব মালিক (৩১ বলে ৩৭ রান) দুর্দান্ত ইনিংস খেলছে। ইনিংস গড়ে দারুণ চাপ সামলে খেলেছে।’

Comments

The Daily Star  | English
Awami League didn't nominate anyone in 2 seats

Seat-sharing for JS polls: AL keeps its allies hanging

A crucial meeting between the Awami League and its 14-party allies ended last night without any concrete decisions on seat sharing.

9h ago