কোহলি-স্মিথ-উইলিয়ামসন-রুটদের মতো হতে চান লাবুশেন

সময়ের সেরা চার ব্যাটসম্যানকে অনুসরণ করে কেবল টেস্টে নয়, ক্রিকেটের একাধিক সংস্করণে দাপট দেখাতে চান মারনাস লাবুশেন।
marnus labuschagne
ছবি: এএফপি

সময়ের সেরা চার ব্যাটসম্যানকে অনুসরণ করে কেবল টেস্টে নয়, ক্রিকেটের একাধিক সংস্করণে দাপট দেখাতে চান মারনাস লাবুশেন।

ভারতের মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে দেশ ছাড়ার আগে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর কাছে নিজের আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছেন দারুণ প্রতিভাবান এই তরুণ অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান।

‘স্টিভ স্মিথ, বিরাট কোহলি, কেন উইলিয়ামসন ও জো রুট- তাদেরকে আমি অনুসরণ করি এবং তাদের মতো হতে চাই। তারা লম্বা সময় ধরে এটা করে আসছে, পাঁচ-ছয় বছর ধরে তারা খুবই ধারাবাহিক, কেবল একটা সংস্করণে নয়, বরং দুই বা তার চেয়ে বেশি সংস্করণে।’

২৫ বছর বয়সী লাবুশেন টেস্টে সময়ের সবচেয়ে আলোচিত উদীয়মান ক্রিকেটার। সাদা পোশাকে নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে তিনি প্রথমবারের মতো জায়গা করে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দলে। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া ভারতের বিপক্ষে সিরিজে অভিষেক হবে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের।

তাই লাল-বলের ক্রিকেট রাঙিয়ে লাবুশেন এবার সাদা-বলের ক্রিকেটের চ্যালেঞ্জ নিতে তৈরি হচ্ছেন। ভবিষ্যতে তার প্রধান লক্ষ্য, লম্বা সময় ধরে ধারাবাহিকতা বজায় রাখা এবং জাতীয় দলের হয়ে বিভিন্ন সংস্করণে অবদান রাখা।

‘আমার ব্যক্তিগতভাবে অনেক কিছু শেখার আছে এবং উন্নতি করার বাকি আছে। কারণ এই গ্রীষ্মে আমি কিছু সফলতা পেয়েছি। কিন্তু আমার জন্য মূল চ্যালেঞ্জ হলো সামনে আরও ধারাবাহিক হওয়া এবং যেভাবে পারফর্ম করে আসছি, সেটা বজায় রাখা।’

‘সামনের এই ওয়ানডে সিরিজে আমি সুযোগ পাচ্ছি আমার খেলার একটা আলাদা ধরন উপস্থাপন করার যা এই গ্রীষ্মে কেউ দেখেনি। এটা একটা উত্তেজনাপূর্ণ চ্যালেঞ্জও বটে।’

১৪টি টেস্ট খেলা লাবুশেন বর্তমানে আইসিসি টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় সেরা ব্যাটসম্যান। ভারত সফর দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দলের জার্সি তার গায়ে উঠতে যাচ্ছে। আর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিও এখনও খেলা হয়নি তার।

Comments

The Daily Star  | English

Invest in Bangladesh, PM tells Indian businesspersons

Prime Minister Sheikh Hasina today invited Indian businesspersons to invest in Bangladesh, stating that she prioritises neighbouring countries

5h ago