অস্ট্রেলিয়ায় দাবানল নেভাতে গিয়ে পানিবাহী উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত, নিহত ৩

অস্ট্রেলিয়ার আলপাইন অঞ্চলে দাবানল নেভানোর কাজে ব্যবহৃত একটি পানিবাহী ট্যাংকার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে তিনজন ক্রু মারা গেছেন।
দুর্গম এলাকায় দাবানল নেভাতে উড়োজাহাজ ব্যবহার করছে অস্ট্রেলিয়া। ছবি: রয়টার্স

অস্ট্রেলিয়ার আলপাইন অঞ্চলে দাবানল নেভানোর কাজে ব্যবহৃত একটি পানিবাহী ট্যাংকার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে তিনজন ক্রু মারা গেছেন।

আজ (২৩ জানুয়ারি) অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

অস্ট্রেলিয়ার বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র জানান যে উড়োজাহাজটি আগুন নেভাতে পাহাড়ের আড়ালে যেতে দেখা গিয়েছিল। এরপরই উড়োজাহাজটির সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরবর্তীতে স্নোয়ি পর্বতমালার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় কুমা এলাকায় ট্যাংকারটির ধ্বংসাবশেষ পাওয়া যায়। নিহতরা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক।

দাবানল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছিল কানাডার কোলসন এভিয়েশনের সি-১৩০ মডেলের পানিবাহী উড়োজাহাজটি। এ ধরনের ট্যাংকারগুলো ১৫ হাজার লিটার পানি বহন করতে পারে। স্থলপথে পৌছানো দুঃসাধ্য এমন জায়গায় দাবানল নেভাতে পানিবাহী এই উড়োজাহাজগুলো ব্যবহার করা হয়।

দাবানলে ক্যানবেরা বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা

ক্যানবেরা বিমানবন্দরের কাছাকাছি এলাকায় দাবানল ছড়িয়ে পড়ায় তাৎক্ষণিকভাবে সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

ক্যানবেরা বিমানবন্দরের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, আজ (২৩ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর একটার দিকে ক্যানবেরা বিমানবন্দরের সকল বেসামরিক ফ্লাইট বাতিলের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

দুপুরের আগে বিমানবন্দরের দক্ষিণে দাবানল দেখা দিলে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সেখানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে। পরবর্তীতে দাবানলের আগুন বিমানবন্দরের পশ্চিমে ছড়াতে থাকে।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের বেশ কিছু এলাকায় দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে গত কয়েক মাস ধরে উড়োজাহাজের মাধ্যমে দাবানল নেভানোর কাজে ক্যানবেরা বিমানবন্দর ব্যবহার করছে দমকল বাহিনী। 

Comments

The Daily Star  | English

Over 37 lakh people affected due to Cyclone Remal: minister

At least 37,58,096 people in 19 districts of the coastal region of the country have been affected by Cyclone Remal, State Minister for Disaster Management and Relief Mohibbur Rahman said today

14m ago