শীর্ষ খবর

স্যার ফজলে হাসান আবেদের পক্ষে ‘ইদান পুরস্কার’ গ্রহণ করল তার পরিবার

অর্থমূল্যের দিক থেকে শিক্ষার উন্নয়নে বিশ্বের সবচেয়ে বড় পুরস্কার ‘ইদান প্রাইজ’ আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) স্যার ফজলে হাসান আবেদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

অর্থমূল্যের দিক থেকে শিক্ষার উন্নয়নে বিশ্বের সবচেয়ে বড় পুরস্কার ‘ইদান প্রাইজ’ আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) স্যার ফজলে হাসান আবেদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

পুরস্কারের স্বর্ণপদকটি গ্রহণ করেন তার মেয়ে ব্র্যাক এন্টারপ্রাইজেস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ড-এর চেয়ারপারসন তামারা আবেদ ও সার্টিফিকেট গ্রহণ করেন তার ছেলে ব্র্যাক মাইক্রোফাইন্যান্স ও আলট্রা পুওর গ্র্যাজুয়েশন কর্মসূচির ঊর্ধ্বতন পরিচালক শামেরান আবেদ।

পুরস্কার প্রদান উপলক্ষে এর প্রবর্তক ড. চার্লস চেন ইদান চলতি সপ্তাহে দুদিনের সফরে ঢাকায় আসেন। আজ বিকেলে ব্র্যাকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার তুলে দেন তিনি।

শিক্ষার উন্নয়নে যুগান্তকারী অবদানের জন্য ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে স্যার ফজলে হাসান আবেদ ‘ইদান প্রাইজ ফর এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট লরিয়েট’ হিসেবে ঘোষিত হন। অক্টোবরে ইদান প্রাইজ ফাউন্ডেশনের একটি প্রতিনিধিদল ঢাকায় তার সঙ্গে দেখা করেন।

গত ২০ ডিসেম্বর স্যার ফজলে হাসান আবেদ মৃত্যুবরণ করার পরে ড. চেন ঢাকায় উপস্থিত হয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ও পুরস্কার প্রদানের সিদ্ধান্ত নেন। ঢাকায় অবস্থানকালে তিনি কড়াইল বস্তিতে ব্র্যাক পরিচালিত একটি স্কুল এবং বনশ্রীতে একটি প্রাক-শৈশব উন্নয়ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে বিশ্বব্যাপী শিক্ষার উন্নয়নে স্যার ফজলে হাসান আবেদের নিবেদিতপ্রাণ ভূমিকার কথা স্মরণ করেন ড. চার্লস চেন। তিনি বলেন, ‘প্রকৃত সহানুভূতি, সাহস ও বিশ্বাসের সঙ্গে মানুষের সেবায় স্যার ফজলে তার জীবন উৎসর্গ করেছেন। চারপাশের মানুষকে নিরাশা ত্যাগ করে আশাবাদী হতে উদ্বুদ্ধ করেছিলেন তিনি। মানুষের সুপ্ত সম্ভাবনায় আস্থাশীল হতে শিখিয়েছিলেন। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, সারা বিশ্বের জন্য স্যার ফজলে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে বিরাজ করবেন। যে লক্ষ কোটি  মানুষের জীবন তিনি পাল্টে দিয়েছিলেন, বিশেষ করে সবচেয়ে সুবিধাবঞ্চিত ও দরিদ্রতম জনগোষ্ঠীর মানুষ তাকে আশার স্ফুলিঙ্গ হিসেবে আজীবন মনে রাখবে।’

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক জনাব আসিফ সালেহ্, ইদান প্রাইজ ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি-জেনারেল জনাব এডওয়ার্ড মা, ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব এডুকেশনাল ডেভেলপমেন্ট (বিআইইডি)-এর নির্বাহী পরিচালক ড. ইরাম মারিয়াম এবং ব্র্যাক ও ইদান প্রাইজ ফাউন্ডেশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাবৃন্দ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষার মাধ্যমে উত্তম বিশ্ব সৃষ্টির লক্ষ্য-উদ্দেশ্য নিয়ে ২০১৬ সালে হংকংয়ে ইদান প্রাইজ প্রবর্তন করা হয়। চীনভিত্তিক বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ কোম্পানি টেনসেন্ট-এর অন্যতম কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠাতা ড. চার্লস চেন ইদান এই ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Comments

The Daily Star  | English

17-yr-old student killed in clash between quota protesters, police and Jubo League

A student of Dhaka Residential Model College was killed during a clash between quota protestors and police along with Jubo league men in Dhaka’s Dhanmondi area today

16m ago