লাহোরে বৃষ্টির কারণে টস হতে দেরি

সিরিজ হার নিশ্চিত হয়ে গেছে আগের ম্যাচেই। পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি এখন টাইগারদের জন্য মান রক্ষার ম্যাচ। হারলেই হোয়াইটওয়াশ। তবে ম্যাচ শুরুর আগে বাগড়া দিয়েছে বৃষ্টি। ফলে নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হয়নি টস।
ছবি: এএফপি

সিরিজ হার নিশ্চিত হয়ে গেছে আগের ম্যাচেই। পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি এখন টাইগারদের জন্য মান রক্ষার ম্যাচ। হারলেই হোয়াইটওয়াশ। তবে ম্যাচ শুরুর আগে বাগড়া দিয়েছে বৃষ্টি। ফলে নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হয়নি টস। সূচি অনুসারে, বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টায় শুরু হওয়ার কথা রয়েছে ম্যাচটি।

শেষ ম্যাচের একাদশে ব্যাপক পরিবর্তনের কথা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। তাই এ ম্যাচে আগের দুই টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ না পাওয়া খেলোয়াড়দের দেখা যেতে পারে। অন্যদিকে, পাকিস্তান দলেও আসতে পারে পরিবর্তন। কারণ আগেই সিরিজ জিতে নেওয়ায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাতে পারে দলটি। তবে র‍্যাংকিংয়ের বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে তাদের। কারণ এ ম্যাচে হারলে এক নম্বর স্থান ছেড়ে দিতে হবে তাদের।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে কিছুটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে এক অর্থে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ১৪১ রানের পুঁজি নিয়ে মাহমুদউল্লাহরা শেষ ওভার পর্যন্ত ম্যাচ টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে। তবে ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিংয়ের ধরনের সমালোচনা হয়েছে অনেক। ওপেনিং জুটি ১১ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করেও রানের গতি বাড়াতে পারেননি। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরাও ব্যর্থ। সবচেয়ে বড় কথা, মেরে খেলার কোনো তাগিদই দেখা যায়নি তাদের মধ্যে।

দ্বিতীয় ম্যাচেও সেই একই দুর্দশা। একই ঘরনার ব্যাটিং। তবে এদিন শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। জুটি গড়ে না ওঠায় ১৩৬ রানের সাদামাটা স্কোর নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। শেষ পর্যন্ত হারতে হয় ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড: মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, নাঈম শেখ, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, রুবেল হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্ত, হাসান মাহমুদ ও আল-আমিন হোসেন।

পাকিস্তান স্কোয়াড: বাবর আজম (অধিনায়ক), আহসান আলী, মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ রিজওয়ান, ইফতেখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, হারিস রউফ, উসম্যান কাদির, আমাদা বাট, মোহাম্মদ মুসা, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাসনাইন ও শাহিন শাহ আফ্রিদি।

Comments

The Daily Star  | English

Sea-level rise in Bangladesh: Faster than global average

Bangladesh is experiencing a faster sea-level rise than the global average of 3.42mm a year, which will impact food production and livelihoods even more than previously thought, government studies have found.

8h ago