জয়কে উপদেষ্টা রাখবেন, না ‘রাজ জ্যোতিষী’ নিয়োগ দেবেন: প্রধানমন্ত্রীকে মির্জা ফখরুল

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের জরিপ নির্বাচনকে প্রভাবিত করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
fakhrul.jpg
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। স্টার ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের জরিপ নির্বাচনকে প্রভাবিত করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ (৩১ জানুয়ারি) বিকালে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের গোপীবাগের বাসায় সাংবাদিকদের কাছে তিনি এই অভিযোগ করেন।

সজীব ওয়াজেদ জয়ের জরিপের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘‘গতকাল প্রধানমন্ত্রীর আইটি উপদেষ্টা বলেছেন, এখানে তাদের দুই মেয়র প্রার্থী জয়লাভ করবে। আপনাদের নিশ্চয়ই মনে আছে যে, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঠিক আগে ২৮ ডিসেম্বর একইভাবে সজীব ওয়াজেদ জয় নির্বাচন নিয়ে একটা ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন।”

তিনি বলেন, “সাধারণত যারা জ্যোতিষী, তারা ভবিষ্যদ্বাণী করে থাকেন। আজকে তিনি সেভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন, আমার মনে হয় প্রধানমন্ত্রীর চিন্তা করা উচিত তাকে তার উপদেষ্টা হিসেবে রাখবেন, না রাজ জ্যোতিষী হিসেবে নতুন নিয়োগ দেবেন।”

“তিনি যেভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করছেন, এটা গোটা নির্বাচনকে প্রভাবিত করছে। যখন সরকারি দলের বড় নেতা বা বড় কর্মকর্তা স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়ে কথা বলেন, তখন সুনির্দিষ্টভাবে এটা নির্বাচনী ব্যবস্থার ওপর প্রভাব পড়ে। নির্বাচন কমিশন যারা ভোট গ্রহণ করবেন, তাদের ওপরও এর প্রভাব পড়ে”, যোগ করেন ফখরুল।

নির্বাচনের আগের দিনের পরিস্থিতি সম্পর্কে বিএনপির এই নেতা বলেন, “আমরা সকাল পর্যন্ত যা দেখেছি, সরকারি কর্মকর্তাদের যে কথা শুনেছি, সরকারি দলের নেতারা যেসব কথা বলছেন, তাতে করে খুবই স্পষ্ট যে সরকার চেষ্টা করছে পুরো নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেওয়ার জন্য।”

উল্লেখ্য, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ফল প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। তার এই জরিপ অনুযায়ী দুই সিটিতেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিপুল জয় হবে।

Comments

The Daily Star  | English

The bond behind the fried chicken stall in front of Charukala

For close to a quarter-century, a business built on mutual trust and respect between two people from different faiths has thrived in front of Dhaka University's Faculty of Fine Arts

1h ago