মেসির সঙ্গে দ্বন্দ্বে চাকরি হারানোর দশা আবিদালের

স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, আবিদালের বিকল্প হিসেবে এরই মধ্যে সাবেক তারকা কার্লোস পুয়োলের সঙ্গে আলোচনা করেছেন বার্তেমেউ।
ফাইল ছবি: এএফপি

বার্সেলোনার স্পোর্টিং ডিরেক্টর এরিক আবিদাল আছেন বেজায় চাপে। সাম্প্রতিক সময়ে ভালো কোনো খেলোয়াড় দলে টানতে পারেননি। সদ্য শেষ হওয়া শীতকালীন ট্রান্সফার উইন্ডোতে হন্যে হয়ে একজন স্ট্রাইকার খুঁজেও হিসাব-নিকাশে মেলাতে পারেননি। তার ওপর দলের প্রাণ ভোমরা লিওনেল মেসির বিরাগভাজন হয়েছেন। সবমিলিয়ে চাকরিটাই খোয়ানোর দশা তার! এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে স্পেনের জনপ্রিয় রেডিও স্টেশন আরএসিওয়ান।

কিছুদিন আগে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মুন্ডো দেপোর্তিভো ও স্পোর্তকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আবিদাল অভিযোগ করে বলেছিলেন, ভালভার্দের অধীনে বেশ কিছু খেলোয়াড় সুখী ছিলেন না। এমনকি ঠিকঠাকভাবে পারফরম্যান্সও করেননি। পাশাপাশি যোগাযোগের ক্ষেত্রেও ব্যক্তিগত সমস্যা ছিল। অথচ কোচ ও ড্রেসিং রুমের মধ্যে সম্পর্ক সবসময়ই ভালো ছিল।

খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে ঢালাওভাবে করা এমন সব অভিযোগকে স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেননি মেসি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তোপ দাগিয়েছেন আবিদালের উপর। আবিদাল কাকে কাকে ইঙ্গিত করেছেন, তাদের নাম জানতে চেয়েছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি। অন্যথায়, আবিদালের মন্তব্যে দলের সব খেলোয়াড় কলঙ্কিত হবেন বলে মনে করছেন তিনি। পাশাপাশি নানা ধরনের অসত্য গুজব ছড়াবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) আরএসিওয়ান তাদের সংবাদে বলেছে, সাবেক দুই সতীর্থের কথা কাটাকাটির পর জরুরী সভা ডেকেছেন বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। ডাকা হয়েছে আবিদালকে। ধারণা করা হচ্ছে, এদিনের শেষভাগে সভাটি অনুষ্ঠিত হবে। আর সেখানে আবিদালের জন্য খারাপ সংবাদই অপেক্ষা করছে!

এছাড়া আরও কয়েকটি স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, আবিদালের বিকল্প হিসেবে এরই মধ্যে সাবেক তারকা কার্লোস পুয়োলের সঙ্গে আলোচনা করেছেন বার্তেমেউ। পাশাপাশি জর্দি ক্রুয়েফের সঙ্গেও হয়েছে কথা-বার্তা। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে প্রশাসনিক পদ থেকে রবার্ট ফের্নান্দেজ ও পেপ সেগুরাকেও ছাঁটাই করেছে বার্সেলোনা।

মূলত ট্রান্সফার উইন্ডোতে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারার কারণেই ছাঁটাই হতে পারেন আবিদাল। প্রায় চার মাসের জন্য মাঠের বাইরে বার্সা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। এই মৌসুমে পাওয়া যাবে না উসমান দেম্বেলেকেও। তাই একজন স্ট্রাইকারের খুব প্রয়োজন দলটির। কিন্তু শীতকালীন দলবদলে দ্বারে দ্বারে ঘুরেও একজন স্ট্রাইকার ন্যু ক্যাম্পে আনতে পারেনি দলটি।

এই ব্যর্থতার দায় অনেকটাই আবিদালের ওপর বর্তেছে। আর এ নিয়ে ক্লাবের অনেকেই অসন্তুষ্ট ছিলেন। তার ওপর সাম্প্রতিক সময়ে খেলোয়াড়দের নিয়ে এমন মন্তব্যে বার্সা প্রশাসনে অবস্থান নড়বড়ে হয়ে গেছে আবিদালের।

Comments

The Daily Star  | English
MP Azim’s body recovery

Feud over gold stash behind murder

Slain lawmaker Anwarul Azim Anar and key suspect Aktaruzzaman used to run a gold smuggling racket until they fell out over money and Azim kept a stash worth over Tk 100 crore to himself, detectives said.

7h ago