পাকিস্তানকে সাড়ে চারশোর আগে অলআউট করল বাংলাদেশ

তিন পেসারের তোপে লাঞ্চের আগেই পাকিস্তানের ইনিংস ছিল শেষের পথে। পথের কাঁটা হয়ে কেবল টিকে ছিলেন হারিস সোহেল। লাঞ্চের পর টেল-এন্ডার নিয়ে তার লড়াইকে আর বেশি দূর এগোতে দেয়নি বাংলাদেশ।

তিন পেসারের তোপে লাঞ্চের আগেই পাকিস্তানের ইনিংস ছিল শেষের পথে। পথের কাঁটা হয়ে কেবল টিকে ছিলেন হারিস সোহেল। লাঞ্চের পর টেল-এন্ডার নিয়ে তার লড়াইকে আর বেশি দূর এগোতে দেয়নি বাংলাদেশ।

রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের তৃতীয় দিনে লাঞ্চের পর পর প্রথম ইনিংসে ৪৪৫ রানে অলআউট হয়েছে পাকিস্তান। তবে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ মাত্র ২৩৩ রান করায় ২১২ রানের বড় লিড নিয়ে নিয়েছে পাকিস্তান। বাংলাদেশের হয়ে আবু জায়েদ রাহি ৮৬ রানে ৩ ও রুবেল হোসেন ১১৩ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট।

দ্বিতীয় দিনে বোলিং শুরুর পর দিনভর ধারাবাহিকতার অভাব ছিল বাংলাদেশের বোলারদের। এক প্রান্তে চাপ তৈরি করছিলেন রাহি, অন্য দিকে বাকি দুই পেসার মেলাতে পারছিলেন না তাল। তৃতীয় দিনে যেন ভিন্ন শরীরী ভাষায় নামে দল। রাহির সঙ্গে মিলে এবার ছন্দ পান ইবাদত হোসেন আর রুবেল।

গতি আর বাউন্সের সঙ্গে ভালো জায়গায় বল ফেলতে থাকেন ইবাদত। রুবেলও ফিরে পান নিজের ছন্দ। সকালের প্রথম দুই ঘণ্টায় ৪ উইকেট ফেলে দেয় বাংলাদেশ।

দিনের একদম দ্বিতীয় বলেই উইকেট পান রাহি। ইবাদত আগের দিনের অসমাপ্ত ওভার শেষ করার বল হাতে পান সুইংয়ে পটু রাহি। তার প্রথম বলেই সেঞ্চুরিয়ান বাবর ক্যাচ দেন স্লিপে। এরপর ইবাদত ব্যাটসম্যানদের দিতে থাকেন কঠিন সময়। একদিকে ইবাদতের গতি, আরেক দিকে রাহির সুইংয়ে জড়সড় হয়ে যায় পাকিস্তান।

এই চাপে মেলে সাফল্য। আগের দিনের অপরাজিত আরেক ব্যাটসম্যান আসাদ শফিক হন কাবু। ইবাদতের ১৪১ কিলোমিটার গতির বলে পরাস্ত হয়ে ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। আগের দিন সাদামাটা বল করা রুবেলও এদিন আক্রমণে এসেই ফেরান মোহাম্মদ রিজওয়ানকে।

এরপর পাল্টা আক্রমণ শুরু করেন হারিস। এই অফ-স্পিনিং অলরাউন্ডার বের করতে থাকেন বাউন্ডারি, পেটান ছক্কাও। ওয়ানডে মেজাজে তুলে নেন ফিফটি। টেল-এন্ডারদের নিয়ে লিড বাড়িয়ে চলেন তিনি। রুবেল অবশ্য পরের স্পেলে ফিরে ইয়াসির শাহকে এলবিডব্লিউ করে নেন আরেক উইকেট।

লাঞ্চের পর শাহিন আফ্রিদিকেও এলবিডব্লিউ করে ফেরান রুবেল। হারিস টিকে ছিলেন তখনও, আনছিলেন রান। তাইজুল ইসলামের বলে পেটাতে গিয়ে ৭৫ রান করে ফেরেন তিনি। এরপর নাসিম শাহকে বুদ্ধিদীপ্তভাবে রানআউট করে স্বাগতিকদের ইনিংস মুড়িয়ে দেন ফিল্ডার সাইফ হাসান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ২৩৩

পাকিস্তান  প্রথম ইনিংস: ১২২.৫ ওভারে ৪৪৫ (শান ১০০, আবিদ ০, আজহার ৩৪, বাবর ১৪৩, আসাদ ৬৫, হারিস ৭৫, রিজওয়ান ১০, ইয়াসির ৫, শাহিন ৩, আব্বাস ১*, নাসিম ২; ইবাদত ১/৯৭, জায়েদ ৩/৮৬, রুবেল ৩/১১৩, তাইজুল ২/১৩৯, মাহমুদউল্লাহ ০/৬)।

Comments

The Daily Star  | English

9 killed as microbus plunges into Barguna canal

At least nine people were killed after a microbus, carrying a bridal party, plunged into a canal after a bridge collapse in Hadia Bazar area of Barguna's Amtali this afternoon

2h ago