খেলা

টেস্ট দলে আসার দিনে ইয়াসিরের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস

আগের ১৩৪ রান নিয়ে নেমে ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি ছাড়িয়ে গেলেন দেড়শ। খেললেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। তবে এরপরই থামেন তিনি, তাকে থামিয়ে ৭ উইকেট নেন সানজামুল ইসলাম। তিনশো পেরিয়ে থামে তাদের দলও।পরে দ্বিতীয় স্পিনারদের তোপে উত্তরাঞ্চল পড়ে বিপর্যয়ে, সেখান থেকে দলকে টানছেন মুশফিকুর রহিম।
ফাইল ছবি

আগের ১৩৪ রান নিয়ে নেমে ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি ছাড়িয়ে গেলেন দেড়শ। খেললেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। তবে এরপরই থামেন তিনি, তাকে থামিয়ে ৭ উইকেট নেন সানজামুল ইসলাম।  তিনশো পেরিয়ে থামে তাদের দলও।পরে দ্বিতীয় স্পিনারদের তোপে উত্তরাঞ্চল পড়ে বিপর্যয়ে, সেখান থেকে দলকে টানছেন মুশফিকুর রহিম। 

কক্সবাজারে বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ইয়াসির আলির ১৬৫ রানের ইনিংসে পূর্বাঞ্চল করে ৩৩১ রান। ১১৫ রানে ৭ উইকেট নেন বাঁহাতি স্পিনার সানজামুল।  জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট  ১৪৫ রান করেছে উত্তরাঞ্চল। ব্যাটিং বিপর্যয়ের মাঝে ২৩ রান নিয়ে খেলছেন মুশফিক, তার সঙ্গে ২২ রান করে ক্রিজে আছেন মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন। 

আগের দিনের ৭ উইকেটে ২৬১ রান নিয়ে নেমে দ্রুতই রান বাড়াতে থাকেন ইয়াসির। নাঈম হাসানকে নিয়ে বাড়তে থাকে তার জুটি। ৭৪ রানের জুটির পর ফেরেন ইয়াসিরই। ক্যারিয়ার সেরা ১৬৫ রানের ইনিংসের পর সানজামুলের বলে এলবিডব্লিও হন তিনি। তাদের ইনিংসও মুড়ে যায় খানিক পর। 

এরপর ব্যাট করতে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে উত্তরের ইনিংস। রনি তালুকদারকে শুরুতেই তুলে নেন হাসান মাহমুদ। জুনায়েদ সিদ্দিকী আর নাঈম ইসলাম থিতু হয়ে ফেরেন নাঈম হাসানের বলে। সাকলাইন সজীব ফিরিয়ে দেন তানবীর হায়দার। আরিফুল হক কাটা পড়েন রান আউটে। শেষ বিকেলে বিপর্যয় সামাল দিয়ে লড়েছেন মুশফিক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

(তৃতীয় দিন শেষে)

উত্তরাঞ্চল প্রথম ইনিংস:২৭২

পূর্বাঞ্চল প্রথম ইনিংস: ৩৩১ 

উত্তরাঞ্চল দ্বিতীয় ইনিংস: ৬৭ ওভারে ১৪৫/৫ (রনি ৫, জুনায়েদ ৩৬, তানবীর ১৪, নাঈম ৩৫, মুশফিক ব্যাটিং ২৩*, আরিফুল ৯, অঙ্কন ২২ ব্যাটিং ২২* ; হাসান ১/৩৯ , নাঈম ২/৫৮, সাকলাইন ১/৩১ , আফিফ ০/৭, আশরাফুল ০/৬, রাহাতুল ০/৪ )

 

Comments

The Daily Star  | English

Youth killed falling into canal in Ctg

A young man was killed falling into a canal in the Asadganj area of port city this afternoon

59m ago