খেলা

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে নতুন অধ্যায় শুরুর প্রত্যাশায় স্মিথ

২০১৮ সালের মার্চে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এক বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল স্মিথকে।
steve smith
স্টিভেন স্মিথ। ছবি: এএফপি

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির প্রায় দুই বছর পর প্রথমবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকায় ফিরেছেন স্টিভেন স্মিথ। ক্যারিয়ারের অন্ধকার সময়ের দুঃসহ স্মৃতি পেছনে ফেলে প্রোটিয়াদের মাটিতে নতুন অধ্যায় শুরুর প্রত্যাশা করছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক।

২০১৮ সালের মার্চে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এক বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল স্মিথকে। শাস্তির মেয়াদ শেষে অজিদের হয়ে তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই ফিরেছেন ৩০ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। ব্যাট হাতে একের পর এক কীর্তি গড়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজ রাঙিয়েছেন আপন মহিমায়। এর আগে স্মিথ খেলেছেন ওয়ানডে বিশ্বকাপেও। আর তিন বছরের দীর্ঘ বিরতির পর গেল অক্টোবরে তার গায়ে উঠেছে অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি জার্সিও।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জোহানেসবার্গে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে অজিরা। তার আগে গণমাধ্যমের কাছে স্মিথ বলেছেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকায় ফিরে এসে ভালো লাগছে। শেষবার যখন আমি এখানে ছিলাম, সবকিছু ঠিকভাবে শেষ হয়নি। কিন্তু এখানে খেলার অনেক সুন্দর স্মৃতি রয়েছে আমার।’

‘হোটেলে হাঁটতে হাঁটতে শুরুর দিকে আমার মনে হয়েছে, “শেষবার এখান থেকে যখন চলে গিয়েছিলাম, বিষয়টা ভালো ছিল না”। এটা আমার জীবনের সেরা সময় ছিল না। কিন্তু সেসব ফেলে আমি এগিয়ে চলেছি এবং অনেক কিছু শিখেছি।’

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফেরার পর অনেকবার স্মিথকে মাঠে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছে। ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপ চলাকালে তাকে দর্শকদের দুয়ো শুনতে হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতেও এমন কিছুর সামনে পড়তে হতে পারে, তা ভালোভাবেই জানেন স্মিথ। তবে সেসব নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে খেলায় মনোযোগী থাকার কথা জানিয়েছেন তিনি।

‘আমি এটা লক্ষ্য করি না। বিশেষ করে ব্যাটিংয়ের সময়। ফিল্ডিংয়ের সময় হয়তো কিছুটা (লক্ষ্য করি)। কিন্তু এগুলো কেবল লোকের মুখের কথা। এসব আমাকে প্রভাবিত করে না।’

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফেরার পর ছয় ম্যাচ খেলেছেন স্মিথ। ব্যাট হাতে নামার সুযোগ পেয়েছেন তিনবার। প্রতিটিতেই রানের দেখা পেয়েছেন তিনি। তার স্কোরগুলো যথাক্রমে অপরাজিত ৫৩, ১৩ ও অপরাজিত ৮০।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer at sea, on land

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

52m ago