আন্তর্জাতিক

বিচারপতি বদলি, রায় বদল

সাম্প্রদায়িক সংঘাতে ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ ওঠা বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দেওয়া বিচারপতি এস মুরলিধরকে বদলি করার পর দিল্লির হাইকোর্টের আদেশও বদলে দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তিত আদেশে বিজেপির চার নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর করার জন্য পুলিশকে চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে।
ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

সাম্প্রদায়িক সংঘাতে ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ ওঠা বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দেওয়া বিচারপতি এস মুরলিধরকে বদলি করার পর দিল্লির হাইকোর্টের আদেশও বদলে গেছে। পরিবর্তিত আদেশে বিজেপির চার নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর করার জন্য পুলিশকে চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে।

এস মুরলিধরকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে বদলি করার পর এফআইআর করার জন্য সময় চেয়ে আবেদন করে দিল্লি পুলিশ। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, উস্কানিমূলক মন্তব্যের জন্য ব্যবস্থা নেওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই। এফআইআর করলে হিতে বিপরীত হতে পারে।

এর পরই চার সপ্তাহ সময় মঞ্জুর করেন দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ডিএন প্যাটেল ও বিচারপতি সি হরিশঙ্করের বেঞ্চ।

বুধবার বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দেওয়া বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে এফআইআর করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি মুরলিধরের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ। পরিস্থিতি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র, অনুরাগ ঠাকুর, অভয় বর্মা এবং পরবেশ বর্মার বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের ভিডিওর কারণে ‘কেন তাঁদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হবে না’ প্রশ্ন তোলেন বিচারপতিরা।

চার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশের পরপরই রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ বিচারপতি এস মুরলিধরকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে বদলি করেন। 

এনডিটিভি জানায়, বুধবার রাতে দিল্লি হাইকোর্টের তৃতীয় সর্বোচ্চ পদাধিকারী বিচারপতি এস মুরলিধরের বদলির প্রজ্ঞাপন জারি করে কেন্দ্রীয় সরকার। এতে বলা হয়, প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা করে বিচারপতি মুরলিধরকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করেছে রাষ্ট্রপতি।

তবে, সাধারণত বদলির জন্য ১৪ দিন সময় দেওয়া হলেও বিচারপতি এস মুরলিধরকে কোনো নির্দিষ্ট সময় দেওয়া হয়নি। 

বিচারপতির বদলি নিয়ে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘সরকার চাইছে বিচারব্যবস্থার মুখ বন্ধ করতে।’

বদলির সিদ্ধান্তকে ‘দুর্ভাগ্যজনক ও লজ্জাজনক’ উল্লেখ করেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এছাড়াও, রাহুল গান্ধী টুইট করেছেন, ‘আজ আমার সাহসী বিচারপতি লোয়ার কথা মনে পড়ছে…।’ তবে, কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ বলেছেন, বদলি নিয়ম মেনেই হয়েছে।

দিল্লির সহিংসতায় এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জনে পৌঁছেছে।

Comments

The Daily Star  | English

Broadband internet restored in selected areas

Broadband internet connections were restored on a limited scale yesterday after 5 days of complete countrywide blackout amid the violence over quota protest

4h ago