ভেঙে যাচ্ছে শাবনূরের সংসার!

বেশ অনেকদিন থেকে শোনা যাচ্ছিলো ভেঙে যাচ্ছে অভিনেত্রী শাবনূরের সংসার। অবশেষে সেটা সত্যি হলো। বনিবনা না হওয়ায় স্বামী অনিক মাহমুদ হৃদয়কে ডিভোর্স দিয়েছেন শাবনূর।
shabnur
চিত্রনায়িকা শাবনূর। ছবি: সংগৃহীত

বেশ অনেকদিন থেকে শোনা যাচ্ছিলো ভেঙে যাচ্ছে অভিনেত্রী শাবনূরের সংসার। অবশেষে সেটা সত্যি হলো। বনিবনা না হওয়ায় স্বামী অনিক মাহমুদ হৃদয়কে ডিভোর্স দিয়েছেন শাবনূর।

গত ২৬ জানুয়ারি স্বামী অনিককে তালাক দিয়েছেন শাবনূর। নায়িকার সই করা নোটিশটি এডভোকেট কাওসার আহমেদের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে।

এডভোকেট কাওসার আহমেদ দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে বলেন, ‘মাদকাসক্ত হয়ে স্ত্রী শাবনূরকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়েছে অনিকের বিরুদ্ধে।’

শাবনূরের পাঠানো তালাক নোটিশের অনুলিপি তার স্বামী অনিকের এলাকার আইন ও সালিশ কেন্দ্রের চেয়ারম্যান এবং কাজী অফিস বরাবরও পাঠানো হয়েছে। এই তালাক নোটিশে সাক্ষী রয়েছেন মো. নুরুল ইসলাম ও শামীম আহম্মদ নামে দুজন।

শাবনূর বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় আছেন। স্বামীকে তালাকের নোটিশ দেওয়ার বিষয়ে জানতে তার অস্ট্রেলিয়ার ফোন নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

এদিকে, ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তালাকের নোটিশ এবং হলফনামা প্রস্তুতকারী অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদ ডেইলি স্টার অনলাইনকে বলেন, ‘গত ২৬ জানুয়ারি অনিকের সঙ্গে বিবাহবন্ধন ছিন্ন করেছেন শাবনূর। গত ৪ ফেব্রুয়ারি অনিকের উত্তরা এবং গাজীপুরের বাসার ঠিকানায় সেই নোটিশ পাঠানো হয়। উত্তরার নোটিশটি ফেরত এলেও গাজীপুরের ঠিকানায় পাঠানো নোটিশ এখনো ফেরত আসেনি। ধরে নিচ্ছি তিনি সেটি পেয়েছেন এবং গ্রহণ করেছেন। আইনগতভাবে ৯০ দিন পর তাদের এই তালাক কার্যকর হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ৬ ডিসেম্বর অনিক মাহমুদ হৃদয়ের সঙ্গে আংটি বদল করেন শাবনূর। এরপর ২০১২ সালের ২৮ ডিসেম্বর তারা বিয়ে করেন। সেই সংসারে ২০১৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর আইজান নিহান নামে এক পুত্রসন্তানের জন্ম হয়।

আরও পড়ুন:

শাবনূরের সঙ্গে সালমানের যে ঘনিষ্ঠতার কথা বলা হচ্ছে সেটা অতটা না: সামিরা

আমার সঙ্গে সালমানের একটা অন্যরকম ভাইবোন টাইপের সম্পর্ক ছিল: শাবনূর

Comments

The Daily Star  | English

An April way hotter than 30-year average

Over the last seven days, temperatures in the capital and other heatwave-affected places have been consistently four to five degrees Celsius higher than the corresponding seven days in the last 30 years, according to Met department data.

10h ago