অঙ্গুলিহেলনে ইসি হেলে পড়লে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব পালন হয় না: মাহবুব তালুকদার

অবাঞ্ছিত অঙ্গুলিহেলনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) হেলে পড়লে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব পালন সম্পন্ন হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।
mahbub talukder
নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। ফাইল ছবি

অবাঞ্ছিত অঙ্গুলিহেলনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) হেলে পড়লে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব পালন সম্পন্ন হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

আজ সোমবার বিকেলে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচন নিয়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নির্বাচন অবশ্যই কমিশনের নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘স্বনিয়ন্ত্রণই নির্বাচন কমিশনের মূল কথা। তবে নির্বাচন কমিশন কখনও নিজে নির্বাচন করে না। কমিশনের অংশীজন হিসেবে আপনারাই নির্বাচন করেন।’

আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকালে সরকার নয়, নির্বাচন কমিশনই আপনাদের পরিপালক।’

তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে নির্বাচন কমিশনের প্রতিষ্ঠা। একমাত্র নির্বাচনের মাধ্যমেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হতে পারে। সুতরাং সংবিধানে প্রদত্ত স্বাধীনতা ও ক্ষমতা দিয়ে সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধিদের বাছাই করা কমিশনের কতর্ব্য। এ দায়িত্ব পালনে আপনারা কমিশনের সহযোগী।’

এ ক্ষেত্রে পরিপূর্ণভাবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে থেকে আইনানুগভাবে নির্বাচনে যথাযোগ্য ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

তিনি বলেন, ঢাকা ১০ আসনের উপনির্বাচন জাতীয় নির্বাচনের অংশ। তারপরও এটি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সঙ্গে তুলনীয় হবে। সিটি নির্বাচনের ভুলত্রুটি সংশোধনের ব্যবস্থা নেয়া হলে, ভবিষ্যতে অন্যান্য সিটি করপোরেশনেও যথাযোগ্য আইনানুগ নির্বাচন হতে পারে বলে মনে করেন তিনি।

মাহবুব তালুকদার বলেন, বাংলাদেশে ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচন অবাধ ও মুক্ত বিবেচিত হয়নি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর। গত ১২ মার্চ ‘কান্ট্রি রিপোর্টস অন হিউম্যান রাইটস প্র্যাকটিসেস’ শীর্ষক ওই প্রতিবেদনে ব্যালট বাক্স ভরা, বিরোধী প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট ও ভোটারদের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ রয়েছে বলেও জানান নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালের নির্বাচনের পর যে সব অভিযোগ উঠেছিল সে সম্পর্কে নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর আত্মসমালোচনার প্রয়োজন ছিল।

মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘কেন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় না, সে বিষয়ে আত্মবিশ্লেষণের প্রয়োজন আছে। আত্মবিশ্লেষণ ছাড়া আত্মশুদ্ধি হতে পারে না।’

বাংলাদেশ সরকার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ওই প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানালেও তিনি মনে করেন, ‘কোনো জাতীয় নির্বাচন, যার মাধ্যমে ক্ষমতা হস্তান্তরিত হয়, তা কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় হতে পারে না।’

Comments

The Daily Star  | English

Afif exposing BCB’s bitter truth

Afif Hossain has been one of the most fortuitous cricketers in the national fold since his debut in February 2018.

6h ago