জুভেন্টাস ছাড়তে হতে পারে রোনালদোকে

২০১৮ সালের গ্রীষ্মের দল-বদলের হুট করেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের যোগ দিয়েছিলেন হালের অন্যতম সেরা তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। বছর দুই যেতেই আবারো হয়তো নতুন ক্লাবে দেখা যেতে পারে এ পর্তুগিজ তারকাকে। কারণ করোনাভাইরাসের প্রভাবে সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দার কারণে তাকে বেঁচে দিতে বাধ্য হতে পারে ইতালির ক্লাবটি।
Ronaldo
দর্শকদের অভিনন্দনের জবাব দিচ্ছেন রোনালদো (ফাইল ছবি)

২০১৮ সালের গ্রীষ্মের দল-বদলের হুট করেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের যোগ দিয়েছিলেন হালের অন্যতম সেরা তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। বছর দুই যেতেই আবারো হয়তো নতুন ক্লাবে দেখা যেতে পারে এ পর্তুগিজ তারকাকে। কারণ করোনাভাইরাসের প্রভাবে সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দার কারণে তাকে বেঁচে দিতে বাধ্য হতে পারে ইতালির ক্লাবটি।

বর্তমানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে স্থবির হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। ফুটবল তো বটেই সব ধরণের খেলাধুলাই বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে আয়ার পথ বন্ধ হয়ে গেছে ক্লাবগুলোর। বিশেষ করে জায়ান্ট ক্লাবগুলো পড়েছে বড় সমস্যায়। দলের বড় তারকাদের বেতন-ভাতা দিয়েই বড় অংশ চলে যায় তাদের। সেখানে রোনালদোর মতো মহাতারকাদের বিশাল বেতন ভাতা দিতে হিমসিম খেতে পারে জুভেন্টাস।

ইতালিয়ান গণমাধ্যম এল মেসাগেরোর সংবাদ অনুযায়ী, কোভিড-১৯ এর ভয়াবহতায় আর্থিক ঘাটতি কমাতে রোনালদোকে চলতি মৌসুম শেষে বিক্রি করে দিতে পারে ওল্ড লেডিরা। যদিও এর মধ্যেই চার মাসের বেতন না নিতে রাজি হয়েছেন জুভেন্টাসের খেলোয়াড়রা। কিন্তু তারপরও বার্ষিক ৩১ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে রোনালদোকে পোষা জুভেন্টাসের পক্ষে অনেকটাই অসম্ভব বলে মনে করছেন ফুটবল বোদ্ধারা।

সংবাদ অনুযায়ী, মূলত ক্লাবের আর্থিক ভারসাম্য রক্ষা করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে জুভেন্টাসের। চলতি বছরে তাদের যে ঘাটতি হয়েছে তাতে আগামী ২০২২ সাল পর্যন্ত রোনালদোর নিয়মিত বেতন দেওয়া তাদের পক্ষে বেশ কঠিন। তবে রোনালদোকে ধরে রাখতে আরও একটি সিদ্ধান্ত নিতে পারে ক্লাবটি। ২০২২ সালের আগেই রোনালদোকে তার বেতন কমানোর প্রস্তাব দিতে পারে বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে এল মেসাগেরো।

অথচ চার মাস বেতন-ভাতা না নেওয়ার কারণে এমনিতেই ১০ মিলিয়ন ইউরো বেঁচে যাচ্ছে জুভেন্টাসের। পুরো জুভেন্টাস স্কোয়াড থেকে ৮০ মিলিয়ন ইউরো বাচবে ক্লাবটির। কিন্তু এতো কিছুর পরও ক্লাবটির ঘাটতি থেকেই যাবে। তাই রোনালদোকে ৬৩ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে আগামী মৌসুমে বেঁচে দেওয়ার আলোচনা চলছে ক্লাব কর্মকর্তাদের মধ্যে।

রোনালদোকে ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে কিনেছিল ওল্ড লেডিরা। মাঠেও দারুণ খেলছেন। নিয়মিত গোল করছিলেন। তাই চুক্তির মেয়াদ আরও দুই বছর বাড়িয়ে ২০২৪ পর্যন্ত তাকে রেখে দিতে চেয়েছিল জুভেন্টাস। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক ঘাটতির কারণে নতুন চুক্তি তো দূরের কথা, ২০২২ পর্যন্ত থাকা চুক্তির আগেই হয়তো ক্লাব ছাড়তে হতে পারে তাকে।

Comments

The Daily Star  | English
PM declares 12 districts, 123 upazilas free of homeless people

PM warns of conspiracy against government

Prime Minister Sheikh Hasina has warned that quarters with vested interest are conspiring to destabilise the government, drawing "parallels to the tragic events of August 1975"

51m ago