করোনার লক্ষণ নিয়ে মারা গেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃষক, ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণ নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার একজন কৃষক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা গেছেন।
B.Baria-1.jpg

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণ নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার একজন কৃষক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা গেছেন।

গতকাল সন্ধ্যায় তিনি মারা যান বলে নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ।

ওই কৃষকের বাড়ি উপজেলার আইয়ুবপুর ইউনিয়নের চরছয়আনি গ্রামে।

বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আল মামুন জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থাকা ৪৫ বছর বয়সী ওই কৃষককে গত সোমবার বিকেলে ঢাকায় পাঠানো হয়।

তিনি জানান, ওই ব্যক্তির করোনা উপসর্গ ছিল। তবে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন কী না, সেটি পরীক্ষার রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না।

অপরদিকে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় করোনা আক্রান্ত সন্দেহে শিশুসহ পাঁচ জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। সন্দেহভাজনদের মধ্যে একই পরিবারের তিনজন রয়েছেন।

নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অভিজিৎ রায় দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত তাদের সবাইকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রোগীদের সবার বাড়ি নাসিরনগর উপজেলা সদরে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ বলেন, ‘ওই পাঁচ ব্যক্তির নাক ও গলা থেকে নমুনা নিয়ে টেস্টটিউবের মাধ্যমে সংরক্ষণাগারে রাখা হয়েছে।’

‘অনলাইনে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা এভাবে প্রতিদিনই বিভিন্ন উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য একযোগে ঢাকায় পাঠাবেন’, যোগ করেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Sundarbans cushions blow

Cyclone Remal battered the coastal region at wind speeds that might have reached 130kmph, and lost much of its strength while sweeping over the Sundarbans, Met officials said. 

6h ago