রিয়াল মাদ্রিদকে ফের গ্যালাক্টিকোস বানাতে চান পেরেজ!

রে আবারো সেই গ্যালাক্টিকোস বানানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। যদিও পেরে ওঠেননি। তবে এবার আটঘাট বেঁধেই তারকাপুঞ্জ গঠনে মাঠে নেমেছেন পেরেজ।

একটি দলের হয়ে যদি একগাদা তারকা ফুটবলার মাঠে পারফর্ম করে, সে দলটিকে গ্যালাক্টিকোস ছাড়া আর কোনো নাম দেওয়া যেতে পারে কি? বিশ্ব ফুটবল এমনটাই দেখেছিল ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের হাত ধরে। রিয়াল মাদ্রিদে এক সময় প্রত্যেকটি পজিশনে সময়ের সেরা তো বটেই, ইতিহাসের অনেক সেরা তারকাও খেলত। পরে আবারো সেই গ্যালাক্টিকোস বানানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। যদিও পেরে ওঠেননি। তবে এবার আটঘাট বেঁধেই তারকাপুঞ্জ গঠনে মাঠে নেমেছেন পেরেজ।

রিয়াল মাদ্রিদকে যে আবার গ্যালাক্টিকোস বানাতে চান পেরেজ, এটা কোনো গোপন ব্যাপার নয়। অনেকবারই রিয়াল সভাপতির কণ্ঠে উঠে এসেছে তা। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু বড় নাম দলে ভিড়িয়েও ফল না পাওয়ায় প্রত্যাশা পূরণ হচ্ছিল না। তাতে দমে যাচ্ছেন না ফুটবল বিশ্বের অন্যতম সেরা এই মেধাবী সভাপতি। এজন্য এবার নতুন পরিকল্পনা করেছেন। প্রয়োজনে বেশ কিছু খেলোয়াড়কে অদল-বদল চুক্তিতে আনার পরিকল্পনা করেছেন।

অনেক দিন থেকে বার্নাব্যুতে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপেকে আনতে চাইছেন কোচ জিনেদিন জিদান। এজন্য বেশ কিছু লোভনীয় প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল বলে নানা সময়ে সংবাদ উঠে এসেছে। এমনকি এমবাপেও রিয়ালে আসতে চান বলে গুঞ্জন আছে। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও ফরাসি কিংবদন্তি জিদানকে নিজের আইডলও মানেন এমবাপে। কিন্তু পিএসজি তাকে ছাড়তে রাজি নয়।

মূলত ফরাসি লিগ ওয়ানে খেলোয়াড়দের নির্দিষ্ট রিলিজ ক্লজ না থাকায় তা সম্ভব হয়েছে। ইচ্ছেমতো দাম হাঁকিয়ে তাকে আটকে রেখেছে পিএসজি। অন্যথায়, দলবদল আরও আগেই হতো বলে মনে করেন অনেক ফুটবল বোদ্ধা। তবে এমবাপেকে পেতে আশা ছাড়ছে না রিয়াল। আগামী ২০২১ সালের গ্রীষ্মে পিএসজির সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাবে তার। তখন তাকে বাধা ছাড়াই দলে ভেড়াতে পারবে রিয়াল। আর রিয়ালও এমন পরিকল্পনাই করেছে। ভবিষ্যতের সেরা তারকাকে পেতে একটি বছর অপেক্ষা করতে রাজি তারা।

কিন্তু এমবাপেকে যে কোনো মূল্যে আটকে রাখতে চায় পিএসজি। খুব বড় কোনো প্রস্তাব দিয়ে আটকে রাখার চেষ্টা করতে পারে তারা। যদিও অনেক দিন থেকেই গুঞ্জন আছে, এমন অনেক প্রস্তাবই দেওয়া হয়েছে বিশ্বকাপজয়ী এ তরুণকে। কিন্তু মন গলেনি তার। যার জন্য চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির খবর এখনও আসেনি ফুটবল অঙ্গনে।

এমবাপেকে এখনই না পেলেও আগামী গ্রীষ্মে বর্তমান সময়ের বিস্ময় বালক এরলিং হালান্ডকে দলে ভেড়াতে চাইছে রিয়াল। রেডবুল সালজবুর্গের হয়ে অবিশ্বাস্য এক মৌসুম কাটিয়েছেন তিনি। এরপর মৌসুমের মাঝপথে যোগ দিয়েছেন জার্মান ক্লাব বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডে। সেখানেও ধরে রেখেছেন বিস্ময়ের ধারাবাহিকতা। করোনাভাইরাসের কারণে মাঝপথে ফুটবল স্থবির হওয়ার আগে অস্ট্রিয়ান ক্লাবে ২৭ ম্যাচে ২৯ গোল দেওয়ার পর জার্মান ক্লাবের হয়ে ১১ ম্যাচে করেছেন ১২ গোল।

বেশ কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদ, হালান্ডের রিলিজ ক্লজ ৭৫ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করে আগামী গ্রীষ্মেই ১৯ বছর বয়সী এ তরুণকে দলে ভেড়াবে রিয়াল। আর এমনটা যে হতে পারে তার ইঙ্গিত এজেন্ট মিনো রাইওলাও দিয়েছেন। হালান্ড কিংবা এমবাপে যে কোনো একজন তারকাকে এ মৌসুম শেষেই রিয়ালে আনবেন বলে অঙ্গীকার করেছেন। আর হালান্ডকে এ মৌসুমে আনার চিন্তা থেকেই হয়তো এমবাপেকে আনার চিন্তা এক বছর পিছিয়ে দিয়েছে দলটি।

রিয়ালে আগে থেকেই আছেন এদেন হ্যাজার্ডের মতো তারকা। আগামী বছর থেকে যদি রিয়ালের আক্রমণভাগে তার সঙ্গে হালান্ড ও এমবাপে খেলেন, তাহলে নিঃসন্দেহে বিশ্বের সেরা আক্রমণভাগই হবে তাদের। অনেকেই ধারণা করছেন, বার্সেলোনার এক সময়ের বিখ্যাত আক্রমণত্রয়ী লিওনেল মেসি, নেইমার ও লুইস সুয়ারেজের চেয়েও ভালো হবেন তারা। তবে তা সময়ই বলে দেবে। এছাড়া বেশ কিছু গণমাধ্যমে রোনালদোকে ফিরিয়ে আনার খবরও মিলছে। 

মাঝমাঠেও শক্তি বাড়াতে চেষ্টা করছে রিয়াল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিশ্বকাপজয়ী তারকা পল পগবাকে অনেক দিন থেকেই পেতে চাইছে দলটি। পগবাও চাইছেন। কিন্তু দাম নিয়ে বনিবনা হচ্ছে না বলেই এখনও চুক্তি হয়নি। ম্যান ইউনাইটেডেই আছেন পগবা। তবে আগামী ২০২১ সালে ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে তারও। সেক্ষেত্রে তাকেও বিনামূল্যে দলে ভেড়াতে পারবে ক্লাবটি।

এর আগে, গ্যালাক্টিকোস বানাবেন এমনটা ঘোষণা দিয়েই ২০০০ সালে প্রথমবার রিয়ালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন পেরেজ। গড়েছিলেনও। শুরুটা করেন খোদ বার্সেলোনা থেকে পর্তুগিজ তারকা লুইস ফিগোকে এনে। পরের বছরই জুভেন্টাস থেকে জিদানকে। এক এক করে রোনালদো নাজারিও, ডেভিড বেকহাম, মাইকেল ওয়েন, রবিনহোর মতো খেলোয়াড়দের দলে টেনে স্বপ্নের গ্যালাক্টিকোস গড়েন তিনি।

এরপর দ্বিতীয় দফায় ফের প্রেসিডেন্ট হয়েও একই পথে হেঁটেছিলেন। যদিও আগেরবারের মতো তারকাপুঞ্জ গঠন করতে পারেননি। তবে শুরুতেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে দলে ভেড়ান সময়ের অন্যতম সেরা তারকা রোনালদোকে। পরে করিম বেনজেমা, জাবি আলন্সো, মেসুত ওজিল, আনহেল দি মারিয়া, লুকা মদ্রিচ, হামেস রদ্রিগেজ, গ্যারেথ বেলদের মতো তারকা খেলোয়াড়দেরও দলে টানেন।

Comments

The Daily Star  | English

Coastal villagers shifted to LPG from Sundarbans firewood

'The gas cylinder has made my life easy. The smoke and the tension of collecting firewood have gone away'

1h ago