করোনাভাইরাস

বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়াল

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি করোনা রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে ১৮৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পরা করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৫৪ হাজার ২১৯ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি করোনা রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে ১৮৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পরা করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৫৪ হাজার ২১৯ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় গত ১১ জানুয়ারি চীনে। এরপর ধীরে ধীরে এই ভাইরাস ছড়াতে থাকে বিশ্বব্যাপী। সংক্রমণের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

গত ১১ জানুয়ারির পর ১৯ মার্চ প্রথম এক দিনে মৃত্যুর সংখ্যা এক হাজার ছাড়ায়। ওই দিন মারা যায় ১ হাজার ৭৯ জন। ২ এপ্রিল প্রথম এক দিনে ৫ হাজার ছাড়ায় মৃত্যু। আর ১০ এপ্রিল এক দিনে ছাড়িয়ে যায় ১০ হাজার। এরপর একটু কমলেও এপ্রিলে গড়ে প্রতিদিন মারা যাচ্ছে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ।

করোনায় মৃত্যুর তথ্য বলছে, প্রথম মৃত্যুর পর ৫০ হাজার ছাড়াতে সময় লেগেছে ৮২ দিন। আর এর পরের ৫০ হাজার মানুষের মৃত্যু হতে সময় লেগেছে মাত্র ৮ দিন। এক দিন কমে পরের সাত দিনেই মারা গেছে আরও ৫০ হাজার। ১১ জানুয়ারি প্রথম মৃত্যুর পর ২ এপ্রিল ৫০ হাজার ছাড়ায় করোনায় মুত্যু। এরপর ১০ এপ্রিল এটি ছাড়িয়ে যায় এক লাখ। আর ১৭ এপ্রিল এসে দাঁড়ায় ১ লাখ ৫১ হাজার ৬ জনে।

বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ২২ লাখ ৪৪ হাজার ৩০৩ জন। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক সংক্রমণ যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন সাত লাখ দুই হাজার ১৬৪ জন আর মারা গেছেন ৩৭ হাজারেরও বেশি মানুষ।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছেন ৮৩ হাজার ৭৮৪ জন।

স্পেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৯০ হাজার ৮৩৯ জন ও মারা গেছেন ২০ হাজার দুই জন, ইতালিতে আক্রান্ত এক লাখ ৭২ হাজার ৪৩৪ জন ও মারা গেছেন ২২ হাজার ৭৪৫ জন, ফ্রান্সে আক্রান্ত এক লাখ ৪৯ হাজার ১৩০ জন ও মারা গেছেন ১৮ হাজার ৬৮১ জন, জার্মানিতে আক্রান্ত এক লাখ ৪১ হাজার ৩৯৭ জন ও মারা গেছেন চার হাজার ৩৫২ জন এবং যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত এক লাখ নয় হাজার ৭৬৯ জন ও মারা গেছেন ১৪ হাজার ৫৭৬ জন। যুক্তরাষ্ট্রের ছাড়াও এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় লাখের ঘর ছুঁয়েছে এই কয়েকটি দেশ।

Comments

The Daily Star  | English

Our civil society needs to do more to challenge power structures

Over the last year, human rights defenders, demonstrators, and dissenters have been met with harassment, physical aggression, detainment, and maltreatment by the authorities.

7h ago