শীর্ষ খবর

ঠাকুরগাঁওয়ে ত্রাণের দাবিতে মহাসড়কে বিক্ষোভ

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কের তেলিপাড়ায় ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমিক ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা।
ত্রাণের দাবিতে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কে বিক্ষোভ করেন কর্মহীন শ্রমিক ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা। ছবি: সংগৃহীত

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কের তেলিপাড়ায় ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমিক ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা।

স্থানীয়রা জানান, দুপুর ১টার দিকে তেলিপাড়া এলাকার নারী-পুরুষরা ত্রাণের দাবিতে মহাসড়কে বসে পড়েন। এসময়ে মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

খবর পেয়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন, সালন্দর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) এর চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম মুকুলসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।

ত্রাণের দাবি জানাতে আসা একজন বলেন, এখানকার বেশিরভাগই নিম্ন আয়ের ও হতদরিদ্র। প্রায় প্রত্যেকেই দৈনিক আয়ের ওপর নির্ভরশীল। ঘরে খাওয়া নেই বলে ত্রাণের দাবিতে এসেছেন। এলাকায় একবার ত্রাণ  দেয়া হলেও সবাইকে দেয়া হয়নি। যারা পেয়েছেন তাদের খাওয়াও শেষ হয়ে গেছে।

জানতে চাইলে সালন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুব আলম মুকুল বলেন, ‘আমার ইউনিয়নে ইতোমধ্যে প্রায় এক হাজার ৭০০ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। এর বাইরেও অনেক মানুষের খাদ্য সহায়তার প্রয়োজন। কিন্তু বরাদ্দ কম হওয়ায় কেউ কেউ বাদ পড়েছেন। যাদের খাদ্যসামগ্রী দেয়া হয়েছে তাদেরও প্রায় শেষ।’

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন দ্য ডেইলি স্টার কে

বলেন, খাদ্যসামগ্রীর দরকার হলে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এরপরেও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ না করে রাস্তায় বিক্ষোভ করছে লোকজন।

তিনি বলেন, ‘আজ ঠাকুরগাঁও পৌরসভাসহ সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে দুই হাজার ৪৩০ জনকে ত্রাণসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। প্রতিদিনই এই কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এরপরও যাদের খাদ্যসামগ্রীর প্রয়োজন তাদের দ্রুত খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হবে।’

 

Comments

The Daily Star  | English
wage workers cost-of-living crisis

The cost-of-living crisis prolongs for wage workers

The cost-of-living crisis in Bangladesh appears to have caused more trouble for daily workers as their wage growth has been lower than the inflation rate for more than two years.

1h ago