'আমাকে আসল রোনালদো ডাকা অবশ্যই বিরক্তিকর'

'মেসির সঙ্গে ভুল রোনালদোর তুলনা করা হচ্ছে।' -কদিন আগে ব্রাজিলিয়ান রোনালদোকে 'আসল রোনালদো' উল্লেখ করে এমন মন্তব্যই করেছিলেন সাবেক ইতালিয়ান তারকা ক্রিস্তিয়ান ভিয়েরি। শুধু তিনিই নন, 'আসল রোনালদো' বলতে অনেকেই ব্রাজিলিয়ান তারকাকেই বোঝেন। তবে এ তুলনা পছন্দ করেন না দুই বারের বিশ্বকাপ জয়ী এ তারকা। এটা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জন্য বেশ বিরক্তিকর বলে মনে করেন তিনি।
ফাইল ছবি: এএফপি

'মেসির সঙ্গে ভুল রোনালদোর তুলনা করা হচ্ছে।' -কদিন আগে ব্রাজিলিয়ান রোনালদোকে 'আসল রোনালদো' উল্লেখ করে এমন মন্তব্যই করেছিলেন সাবেক ইতালিয়ান তারকা ক্রিস্তিয়ান ভিয়েরি। শুধু তিনিই নন, 'আসল রোনালদো' বলতে অনেকেই ব্রাজিলিয়ান তারকাকেই বোঝেন। তবে এ তুলনা পছন্দ করেন না দুই বারের বিশ্বকাপ জয়ী এ তারকা। এটা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জন্য বেশ বিরক্তিকর বলে মনে করেন তিনি।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রাম লাইভে বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক ইতালিয়ান তারকা ফ্যাবিও ক্যানেভারোর সঙ্গে আলাপকালে 'আসল রোনালদো' ডাকে আপত্তি জানান এ ব্রাজিলিয়ান, 'ক্রিস্তিয়ানোর জন্য, আমাকে আসল রোনালদো ডাকা অবশ্যই বিরক্তিকর। লোকজনের তুলনা করা উচিৎ না। গোল করার জন্য ক্রিস্তিয়ানো অবশ্যই ইতিহাসের অংশ হয়ে থাকবে এবং সে যা ধারাবাহিকভাবে অর্জন করেছে। মেসির মতো, সে অবশ্যই সেরাদের একজন।'

২১ বছর বয়সের আগেই তিন বার ফিফার বর্ষসেরার পুরস্কার পান ব্রাজিলিয়ান রোনালদো। খেলেছেন তিনটি বিশ্বকাপের ফাইনালও। ১৯৯৪ ও ২০০২ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় তার দল। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে ১৯৯৮ সালে হতে পারেনি। তবে সেবার ফাইনাল ম্যাচে সম্পূর্ণ ফিট ছিলেন না এ কিংবদন্তি। এ নিয়ে অনেক গুঞ্জনও রয়েছে।

দুই রোনালদোই খেলেছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে। তবে ক্লাবের হয়ে সাফল্য ক্রিস্তিয়ানোরই বেশি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগসহ অনেক বেশি ট্রফি জিতেছেন তিনি। ক্রিস্তিয়ানো অবশ্য অনেক ইনজুরি মুক্ত ক্যারিয়ারই কাটাচ্ছেন। অন্যদিকে ব্রাজিলিয়ান রোনালদোর জন্য ভাগ্য এতোটা সুপ্রসন্ন ছিল না। ক্যারিয়ারের অনেকবার লম্বা সময়ের জন্য পড়েছেন ইনজুরিতে। এমনকি এই ইনজুরির জন্য মাত্র ২৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন। সেখানে প্রায় ৩৫ বছর বয়সেও দাপটের সঙ্গে খেলে যাচ্ছেন ক্রিস্তিয়ানো।

Comments

The Daily Star  | English

Peacekeepers can face non-deployment for rights abuse: UN

The UN peacekeepers can face non-deployment and even repatriation if the allegations of human rights against them are substantiated

33m ago