এমপির উদ্যোগে বাগেরহাটে একটি ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’

করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের উদ্যোগ ও ব্যক্তিগত অর্থায়নে জেলা সদর হাসপাতালে একটি ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’ চালু করা হয়েছে।
এমপির উদ্যোগে বাগেরহাটে একটি ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’। ছবি: স্টার

করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের উদ্যোগ ও ব্যক্তিগত অর্থায়নে জেলা সদর হাসপাতালে একটি ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’ চালু করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ সদর হাসপাতাল ভবনে এ সেফটি চেম্বারের উদ্বোধন করেন।

পর্যায়ক্রমে জেলার সব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’ চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন।

‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’র উদ্বোধন শেষে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, ‘চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আস্থা ফিরেয়ে আনতে “ডক্টরস সেফটি চেম্বার” চালু অনেক ভূমিকা রাখবে। ভবিষ্যতে যেকোনো দুর্যোগ ও মহামারি মোকাবিলায় এই সেফটি চেম্বার চিকিৎসকদের নিরাপত্তায় অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।’

বাগেরহাট জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ফারহান আতেফ বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে এই “ডক্টরস সেফটি চেম্বার” আমাদের সুরক্ষায় ভূমিকা রাখবে। সেফটি চেম্বারে বসে রোগীকে সেবা দিলে চিকিৎসকদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। ফলে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন অনেক ক্ষেত্রে কমে যাবে।’

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতের জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি। এই পরিস্থিতির শুরুতে এমপির নির্দেশে আমরা “ডাক্তারের কাছে রোগী নয়, রোগীর কাছে ডাক্তার” এই সেবা চালু করেছিলাম। ফলে হাসপাতালে রোগী কমলেও, প্রকৃত রোগীরা ঠিকই চিকিৎসা পাচ্ছেন। হাসপাতালে চিকিৎসকদের সুরক্ষার জন্য এমপি “ডক্টরস সেফটি চেম্বার” করে দিয়েছেন। এটি চিকিৎসকদের সুরক্ষায় ভূমিকা রাখবে। চিকিৎসকরা মানুষকে সেবা দিতে আরও বেশি আন্তরিক হবেন।’

বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন বলেন, ‘বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের অর্থায়নে দুই-একদিনের মধ্যেই কচুয়া, চিতলমারী, ফকিরহাট ও মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও “ডক্টরস সেফটি চেম্বার” চালু করা হবে। পর্যায়ক্রমে জেলার অন্যান্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও একই ভাবে “ডক্টরস সেফটি চেম্বার” চালু করা হবে।’

‘করোনা পরিস্থিতিতে এর আগেও আমরা মানুষের সু-স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে “ডাক্তারের কাছে রোগী নয়, রোগীর কাছে ডাক্তার” এমন সেবা চালু করেছিলাম। এ ছাড়াও, করোনা পরিস্থিতিতে মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের বিভিন্ন উদ্যোগের জন্য সদর উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে তাকে ধন্যবাদ জানাই’, বলেন তিনি।

‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’র উদ্বোধনে বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়, সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির, বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খান হাবিবুর রহমান, বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. পুলক দেবনাথ, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বেলফার হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা ফিরোজুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীনসহ চিকিৎসা বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

93pc jobs on merit, 7pc from quotas

Govt issues circular; some quota reform organisers reject it

2h ago