ইতালিতে ফিরে আবার কোয়ারেন্টিনে রোনালদো

ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার পরদিন অসুস্থ মা ডোলোরেস আভেইরোর সঙ্গে দেখা গিয়েছিলেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। কিন্তু যাওয়ার পরদিন শোনেন সতীর্থ দানিয়েল রুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। ফলে স্বেচ্ছায় ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে ছিলেন এ তারকা। তার কোনো সমস্যা দেখা দেয়নি। তবে আবারও কোয়েরেন্টিনে থাকতে হচ্ছে তাকে। পর্তুগাল থেকে ইতালিতে আসায় এবার বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে যেতে হলো পাঁচ বারের ব্যলন ডি'অর জয়ী এ তারকাকে।
Ronaldo

ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার পরদিন অসুস্থ মা ডোলোরেস আভেইরোর সঙ্গে দেখা গিয়েছিলেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। কিন্তু যাওয়ার পরদিন শোনেন সতীর্থ দানিয়েল রুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। ফলে স্বেচ্ছায় ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে ছিলেন এ তারকা। যদিও কোনো সমস্যা দেখা দেয়নি। তবে আবারও কোয়েরেন্টিনে থাকতে হচ্ছে তাকে। পর্তুগাল থেকে ইতালিতে আসায় এবার বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে যেতে হলো পাঁচ বারের ব্যলন ডি'অর জয়ী এ তারকাকে।

ইতালিয়ান গণমাধ্যমগুলোর সংবাদ অনুযায়ী, সোমবার রাত ১০.২০ মিনিটে ব্যক্তিগত বিমানে চড়ে সপরিবারে তুরিন বিমানবন্দরে অবতরণ করেন রোনালদো। অবশ্য গত মঙ্গলবারই (২৮ মে) ইতালিতে ফেরার কথা ছিল রোনালদোর। কারণ গতকাল সোমবার থেকে দেশটিতে ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু হয়ে গেছে। যে কারণে সব খেলোয়াড়দের ডেকে পাঠায় জুভেন্টাস কর্তৃপক্ষ। সে অনুযায়ী ফেরার জন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছিলেন রোনালদো। কিন্তু নানা ঝামেলায় ফিরতে পারেননি তখন।

প্রথমত, পাওলো দিবালা কোভিড-১৯ এর আক্রমণ থেকে রেহাই না পাওয়ায় ইতালিতে ফেরার ঝুঁকি নেননি বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে ইতালিয়ান গণমাধ্যমগুলো। ক্লাবের কাছে তখনই না ফেরার আর্জি জানান। পরে অবশ্য ক্লাব কর্তৃপক্ষ তাকে আশ্বস্ত করে। এরপর নিজের ব্যক্তিগত বিমান আটকে ছিল স্পেনের মাদ্রিদে। সব ধরনের ভ্রমণে কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে স্পেন সরকার। যে কারণে তিনবার ওড়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় বিমানটি। পরে এ সংক্রান্ত বিষয়টির সমাধান হলে অবশেষে ইতালিতে ফিরেন তিনি।

গত মার্চের শুরু থেকে থেমে আছে ইতালিয়ান ফুটবল। তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমায় ধীরে ধীরে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করতে লকডাউন শিথিল করার পদক্ষেপ নিয়েছে ইতালির সরকার। অনুশীলনের সুযোগ দিয়েছেন খেলোয়াড়দেরও। সোমবার থেকে ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু হলেও আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে দলগত অনুশীলন করতে পারবে ক্লাবগুলো। এরপর পরিস্থিতি বুঝে জানানো হবে লিগ শুরুর সূচি।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের কারণে ইতালি ছেড়েছিলেন রোনালদোসহ মোট নয় জন খেলোয়াড়। সবার আগে ইতালিতে ফিরেছেন মিরালেম পিয়ানিচ। এছাড়া   বয়েচেক সেজনি, আদ্রিয়েন রাবিউত, দানিলো, অ্যালেক্স সান্দ্রো, দগলাস কস্তা, গঞ্জালো হিগুয়েইনরার খুব শিগগিরই ফিরবেন বলে জানা গেছে।

Comments

The Daily Star  | English

St Martin’s Island get food, essentials after 9 days

The tourist ship Baro Awlia left a Teknaf jetty this afternoon ferrying the goods, to ease the ongoing food crisis on the island due to the conflict in Myanmar

11m ago