নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে পিসিআর ল্যাব উদ্বোধন

নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় পিসিআর ল্যাব চালু হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ল্যাবের উদ্বোধন করেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম সেলিম ওসমান।
নারায়ণগঞ্জের খানপুরে ৩০০ শয্যা হাসপাতালে কোভিড-১৯ পরীক্ষার ল্যাব উদ্বোধন শেষে নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। ছবি: সনদ সাহা

নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় পিসিআর ল্যাব চালু হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ল্যাবের উদ্বোধন করেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম সেলিম ওসমান।  

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. সামসুদ্দোহা সঞ্চয় বলেন, ‘এখানে প্রতিদিন এক সেটআপে ৯০টি করে পরীক্ষা করা যাবে। আমরা এখান থেকেই দ্রুত ফলাফল দিতে পারব। ল্যাবে একজন ভাইরোলজিস্ট ও তার সঙ্গে ২ জন টেকনিশিয়ান যোগ দিয়েছেন।’

অহেতুক টেস্ট করাতে হাসপাতালে ভিড় না করার আহ্বান জানিয়েছেন এমপি সেলিম ওসমান। তিনি বলেন, ‘সর্দি-কাশি হলেই হাসপাতালে আসবেন না। আগে বাইরের ডাক্তারদের কাছে পরামর্শ নেবেন। যদি ডাক্তাররা বলেন টেস্ট করানো প্রয়োজন তাহলে সেই ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন নিয়ে হাসপাতালে আসবেন। তাহলে টেস্ট হবে।’

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. গৌতম রায় বলেন, ‘হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। অনেকেই সুস্থ হয়েছেন। তবে সুখবর এখনও পর্যন্ত আইসোলেশনে কেউ মারা যায়নি।’

‘তবে দুঃখের বিষয় হলো কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে চিকিৎসক, নার্স ও ওয়ার্ড বয়রাও আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন। যার জন্য ডাক্তার ও নার্স সংকট দেখা দিয়েছে। তারপরও আমরা চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাচ্ছি,’ বলেন তিনি।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির প্রতিনিধি ডা. জাহিদুল ইসলাম।

বুধবার পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের ৩৮৪৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ১১২৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৫১ জন।

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

Swelling rivers worsen flood victims’ plight

The ongoing flood situation in Tangail has continued to worsen as water levels of all main rivers in the district – Jamuna, Dhaleshwari and Jhenai – as well of their tributaries, rose further in 24 hours till this morning

20m ago