লকডাউন থেকে ভাঙা পা নিয়ে ফিরলেন রিয়াল স্ট্রাইকার জোভিচ

স্পেনের সফলতম ক্লাব রিয়াল এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জোভিচের চোটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।
luka jovic
ছবি: এএফপি

গেল সপ্তাহ পর্যন্ত স্পেন জুড়ে চলছিল পুরোপুরি লকডাউন। আর সবার মতো তাই লুকা জোভিচও ছিলেন ঘরবন্দি। তবে লকডাউন আংশিকভাবে উঠে যাওয়ায় এবং লা লিগা মাঠে গড়ানোর প্রস্তুতি শুরু হওয়ায় তিনি যোগ দিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ শিবিরে। কিন্তু তা সত্ত্বেও স্বস্তি পাচ্ছে না দলটি। কারণ, লকডাউন থেকে ভাঙা পা নিয়ে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ফিরেছেন এই তরুণ স্ট্রাইকার।

শুক্রবার স্পেনের সফলতম ক্লাব রিয়াল এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জোভিচের চোটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তার ডান পায়ের গোড়ালির হাড়ে চিড় ধরেছে। ফলে তাকে বেশ কয়েক সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হবে বলে জানিয়েছে ফুটবল বিষয়ক ওয়েবসাইট গোল ডট কম।

স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, কয়েক দিন আগে সার্বিয়া থেকে স্পেনে ফিরেছেন ২২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। এরপর ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাড়িতে অনুশীলন করছিলেন তিনি। আর অনুশীলনের সময়ই পায়ে চোট লেগেছে তার।

গেল মৌসুমে জার্মান বুন্ডেসলিগা আর উয়েফা ইউরোপা লিগে গোলের পর গোল করে ফুটবল বিশ্বের নজর কেড়েছিলেন জোভিচ। আর এবার তিনি খবরের শিরোনাম হচ্ছে নেতিবাচক কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে কিংবা চোটের কারণে।

করোনাভাইরাসের প্রকোপে গেল মার্চে লা লিগা স্থগিত হয়ে যাওয়ার পরপরই নিজ দেশে ফিরে গিয়েছিলেন এই সার্বিয়ান। কিন্তু লকডাউন অমান্য করে ও কোয়ারেন্টিন ভেঙে বান্ধবীর জন্মদিন উদযাপন করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনি। সার্বিয়া সরকারের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণেরও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছিল। পরে অবশ্য ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে যান তিনি।

মাঠের ভেতরেও সময়টা ভালো যাচ্ছে না জোভিচের। নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন তিনি। চলতি ২০১৯-২০ মৌসুমে রিয়ালের জার্সিতে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৪ ম্যাচ খেলে মাত্র ২ গোল করেছেন তিনি। অথচ মৌসুম শুরুর আগে তাকে দলে টানতে ৬০ মিলিয়ন ইউরো খরচ হয়েছে লস ব্লাঙ্কোসদের।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে জোর গুঞ্জন চলছে, প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় জোভিচকে নিয়ে আর মাথা ঘামাতে চাইছেন না রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান। তাই আগামী গ্রীষ্মকালীন দলবদলে তাকে বিক্রি করে দিতে পারে রিয়াল।

লা লিগা মাঠে ফেরাতে চার ধাপের প্রস্তুতিপর্ব বেঁধে দেওয়া হয়েছে স্পেন সরকারের পক্ষ থেকে। প্রথম ধাপে দেশটির শীর্ষ ফুটবল আসরের প্রত্যেক ক্লাবের সব খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করানো হয়েছে। এরপর দ্বিতীয় পর্যায়ে থাকছে মাঠে ব্যক্তিগত পর্যায়ের অনুশীলন।

গেল বুধবার নিজেদের অনুশীলন মাঠে জোভিচসহ মূল দলের ফুটবলারদের নমুনা পরীক্ষা করিয়েছিল রিয়াল। সেসময় দলটির প্রধান কোচ ও কিংবদন্তি সাবেক তারকা জিদান, তার সহযোগী ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্টাফদেরও করোনাভাইরাস পরীক্ষা করানো হয়েছিল। এর একদিন পর পাওয়া গেছে পরীক্ষার ফল। কারও শরীরেই প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

করোনাভাইরাস পরীক্ষায় সবাই নেগেটিভ হওয়ায় রিয়ালের মাঠের অনুশীলনে ফেরায় আর কোনো বাধা নেই। ক্রীড়া বিষয়ক গণমাধ্যম ইএসপিএন জানিয়েছে, আগামী সোমবার থেকে অনুশীলন শুরু করতে যাচ্ছে তারা। কিন্তু জোভিচকে থাকতে হচ্ছে অপেক্ষায়।

Comments

The Daily Star  | English

US supports a prosperous, democratic Bangladesh

Says US embassy in Dhaka after its delegation holds a series of meetings with govt officials, opposition and civil groups

1h ago