স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ঠাকুরগাঁওয়ে দোকানপাট আবারও বন্ধের সিদ্ধান্ত

ক্রেতা-বিক্রেতা কেউই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শহরের বিপণিবিতান ও অন্যান্য দোকানে ঈদের কেনাবেচা করছেন না। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে— এমন আশঙ্কায় ঠাকুরগাঁওয়ে বিপণিবিতান ও দোকানপাট আবারো বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসন।
eid shopping
ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদের কেনাকাটার ভিড়। ১৭ মে ২০২০। ছবি: স্টার

ক্রেতা-বিক্রেতা কেউই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শহরের বিপণিবিতান ও অন্যান্য দোকানে ঈদের কেনাবেচা করছেন না। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে— এমন আশঙ্কায় ঠাকুরগাঁওয়ে বিপণিবিতান ও দোকানপাট আবারো বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

আজ সোমবার সকালে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়েছে।

এই তথ্য নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসক কে এম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১০ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার শর্তে সীমিত আকারে দোকানপাট খোলার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবসায়িক কার্যক্রম চলতে থাকে।’

‘কিন্তু, দুই-একদিন যেতে না যেতেই ক্রেতা-বিক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। ফলে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বিভিন্ন মহল থেকে দোকানপাঠ বন্ধের দাবি আসতে থাকে,’ যোগ করেন তিনি।

এরই প্রেক্ষিতে গতকাল রোববার জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে জেলার ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ঠাকুরগাঁও জেলা শিল্প ও বণিক সমিতি, ঠাকুরগাঁও জেলা ব্যবসায়ী কল্যাণ সোসাইটির নেতাদের সঙ্গে জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় কাপড় ও রেডিমেড গার্মেন্টস, প্রসাধনী ও জুতার দোকান সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সে সিদ্ধান্তের আলোকে রাতে জেলা প্রশাসক এ সংক্রান্ত একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেন।

আজ সকাল থেকে কার্যকর হওয়ায় উল্লেখিত দোকানগেুলো বন্ধ আছে।

সভায় সিভিল সার্জন জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব মো. মাহফুজার রহমান সরকার, ঠাকুরগাঁও চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাজট্রিজের সভাপতি হাবিবুল ইসলাম বাবলু, জেলা ব্যবসায়ী কল্যাণ সোসাইটির সভাপতি মো. ফরিদ উদ্দিন ও ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সভাপতি মনসুর আলীসহ অন্যান্যরা আলোচনায় অংশ নেন।

Comments

The Daily Star  | English
Khaleda returns home

Pacemaker implanted in Khaleda's chest: medical board

The BNP chairperson has been receiving treatment at the critical care unit (CCU) since she was admitted to the hospital early Saturday

1h ago