পটুয়াখালীতে ভেসে গেছে ৮ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ

পটুয়াখালীতে আট কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ভেসে গিয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। জোয়ারের পানি বাড়তে শুরু হওয়ার পরে সদর উপজেলার ছোটবিঘাই ইউনিয়নের পায়রা নদীর বাঁধ, লোহালিয়া ইউনিয়নের বোর্ড অফিস বাজারের পাশে বেড়িবাঁধ ও দশমিনার রনগোপালদি এলাকার বাঁধের কিছু অংশ ভেসে যায়।
পটুয়াখালী
স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

পটুয়াখালীতে আট কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ভেসে গিয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। জোয়ারের পানি বাড়তে শুরু হওয়ার পরে সদর উপজেলার ছোটবিঘাই ইউনিয়নের পায়রা নদীর বাঁধ, লোহালিয়া ইউনিয়নের বোর্ড অফিস বাজারের পাশে বেড়িবাঁধ ও দশমিনার রনগোপালদি এলাকার বাঁধের কিছু অংশ ভেসে যায়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ব্যাপক ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। আট কিলোমিটার বাঁধ সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে।’

ঝড়ের সময় শিশুসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নের খরিদা গ্রামে বাবা-মায়ের সঙ্গে আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার সময় গাছের ডাল ভেঙে চাপা পড়লে রাশেদ নামে পাঁচ বছর বয়সী এক শিশু মৃত্যু হয়। গতকাল সন্ধ্যায় কলাপাড়া উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের ৬ নং ইউনিটের ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির টিম লিডার শাহআলমের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। সকাল থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

Comments