হাসপাতাল ছেড়েছেন নিউজিল্যান্ডের শেষ করোনা রোগী

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আজ ২৭মে দিনটি নিউজিল্যান্ডের জন্য মাইলফলক। এই প্রথম দেশটির কোনো হাসপাতালে একজনও করোনা রোগী নেই।
লকডাউন শিথিলের পর নিউজিল্যান্ডের মুরিওয়াই সমুদ্র সৈকত। রয়টার্স ফাইল ফটো

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আজ ২৭মে দিনটি নিউজিল্যান্ডের জন্য মাইলফলক। এই প্রথম দেশটির কোনো হাসপাতালে একজনও করোনা রোগী নেই।

বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে এ সুসংবাদ জানিয়েছে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগ।

স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ডা. অ্যাশলে ব্লুমফির্ড বলেন, ‘বর্তমানে দেশের কোনো হাসপাতালে আর একজন রোগীও নেই যিনি কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সবশেষ সুস্থ হয়ে মিডলমোর হাসপাতাল থেকে একজন রোগী ছাড়া পাওয়ার পর এই সংখ্যা এখন শূন্য।’

এনবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোনো কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু হয়নি। এছাড়া টানা পঞ্চম দিন করোনায় আক্রান্ত হিসেবে কেউ শনাক্ত হয়নি।

ডা. অ্যাশলে বলেন, ‘বর্তমানে দেশে করোনা রোগীর সংখ্যা ২১, তারা বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।’

এদিকে, টানা প্রায় দুই মাস দেশ লকডাউন থাকার পর গত ১৪ মে থেকে কিছু ব্যবসা কেন্দ্র ও জনসমাগমস্থল খুলে দিতে শুরু করেছে নিউজিল্যান্ড সরকার।

তবে, সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলতে সবাইকে সর্তক করেছেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অ্যার্ডেন। তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড এখন ‌‌‘অ্যালার্ট-২’ স্তরে রয়েছে। রোগ প্রতিরোধ করা গেলেও এখনও সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।’

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৫০৪। মারা গেছেন ২১ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪৬২ জন।

Comments

The Daily Star  | English
BNP postpones April 26 rally

Police raiding BNP's Nayapaltan office

Police have started raiding BNP's Nayapaltan headquarters

1h ago