প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বরখাস্ত

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে (পিআইও) মারধরের অভিযোগে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের পদ থেকে নাজমুল হুদা নবীনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
Nazmul_Huda_Nobin.jpg
ছবি: সংগৃহীত

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে (পিআইও) মারধরের অভিযোগে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের পদ থেকে নাজমুল হুদা নবীনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, গতকাল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জহুরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

গত ২২ মে টাঙ্গাইল সদর থানায় নবীনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন পিআইও মমিনুল। গ্রেপ্তার এড়াতে নাজমুল হুদা গা ঢাকা দেন।

মামলার নথিতে মমিনুল অভিযোগ করেন, গত ২১ মে বিকাল ৫টার দিকে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে তার অফিস কক্ষে আসেন নাজমুল হুদা। তার সঙ্গে আরও চার-পাঁচ জন অনুসারী ছিলেন। নাজমুল হুদা তার কাছে অবৈধভাবে ত্রাণ চান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অনুমতি ছাড়া ত্রাণ দেওয়া যাবে না— জানালে নাজমুল হুদা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর করে আহত করেন। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে নাজমুল তাদের ভয়-ভীতি দেখিয়ে চলে যান। পরে তিনি টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

সেই রাতেই নাজমুল হুদা নবীন তার ফেসবুক ওয়ালে লেখেন, একটি প্রতিবন্ধী শিশুকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার দিতে সুপারিশ করায় পিআইও তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। নাজমুল তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন।

নাজমুল হুদা নবীন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। এর আগে তিনি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।

Comments