করোনাভাইরাস

মৃত্যু ৪ লাখ ২৫ হাজার, আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ৭৬ লাখ

বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যে চার লাখ ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৭৬ লাখ। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন ৩৬ লাখের বেশি মানুষ।
ছবি: রয়টার্স

বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যে চার লাখ ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৭৬ লাখ। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন ৩৬ লাখের বেশি মানুষ।

আজ শনিবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৬ লাখ ৩২ হাজার ৮০২ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ২৫ হাজার ৩৯৪ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৩৬ লাখ ১৩ হাজার ২৭০ জন।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২০ লাখ ৪৮ হাজার ৯৮৬ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ১৪ হাজার ৬৭২ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৩৮৬ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ২৮ হাজার ৮১০ জন, মারা গেছেন ৪১ হাজার ৮২৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৪৫ হাজার ১২৩ জন।

মৃত্যুর সংখ্যার দিক থেকে তৃতীয়তে রয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৪১ হাজার ৫৬৬ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৯৪ হাজার ৪০২ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ২৮২ জন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে রাশিয়া ও পেরুতেও। রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ১০ হাজার ৭৬১ জন এবং মারা গেছেন ৬ হাজার ৭০৫ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬৮ হাজার ৮৬২ জন। পেরুতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৪ হাজার ৭৮৮ জন এবং মারা গেছেন ৬ হাজার ৮৮ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৭ হাজার ১৩৩ জন।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৯৭ হাজার ৫৩৫ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ৪৯৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৭ হাজার ১৯৫ জন।

ইউরোপের দেশ স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ২০৯ জন, মারা গেছেন ২৭ হাজার ১৩৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫০ হাজার ৩৭৬ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৩০৫ জন, মারা গেছেন ৩৪ হাজার ২২৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৭৩ হাজার ৮৫ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৩ হাজার ২২০ জন, মারা গেছেন ২৯ হাজার ৩৭৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭২ হাজার ৬৯৫ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮৭ হাজার ২২৬ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ৭৮৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৭১ হাজার ৫৩৫ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৫২৫ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ৬৫৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৪ হাজার ৬৪৯ জন। তুরস্কে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৫ হাজার ২১৮ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৭৭৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৯ হাজার ১০২ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ২২৮ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৯ হাজার ৪৭২ জন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৮১ হাজার ৫২৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন ১ হাজার ৯৫ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ২৪৯ জন।

Comments

The Daily Star  | English

Iranian Red Crescent says bodies recovered from Raisi helicopter crash site

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

4h ago