না ফেরার দেশে বিশ্বের প্রবীণতম প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার

বসন্ত রাইজি ছিলেন জীবিতদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার।
vasant raiji and sachin tendulkar
ছবি: টুইটার

বসন্ত রাইজি ছিলেন জীবিতদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার। কেবল তা-ই নয়, ছিলেন এক জন ক্রিকেট ইতিহাসবিদও। ভারতের স্বনামধন্য এই ক্রিকেটব্যক্তিত্ব না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন।

শনিবার ভোর রাতে মুম্বাইয়ে বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন রাইজি। গেল ২৬ জানুয়ারি তিনি জীবনের ইনিংসে সেঞ্চুরি পূরণ করেছিলেন। তিনি ৯৫ বছর বয়সী স্ত্রী পান্না রাইজি ও দুই মেয়েকে রেখে গেছেন।

ভারতের শচীন টেন্ডুলকার ও অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ ওয়াহ রাইজির ১০০তম জন্মদিনে তার মুম্বাইয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন। এই কিংবদন্তি সাবেক তারকারা কেক কেটে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন তাকে।

রাইজির মৃত্যুর খবর জানার পর টেন্ডুলকার ওই সাক্ষাতের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ক্রিকেট খেলা এবং দেখার জন্য তার যে আন্তরিকতা এবং আগ্রহ দেখেছি তা খুবই অনুপ্রেরণাদায়ক।’

রাইজি ১৯২০ সালে বরোদায় জন্মগ্রহণ করেছিল। তিনি বেড়ে উঠেছিলেন বোম্বেতে (বর্তমান মুম্বাই)। ১৯৩৩ সালে ভারতের মাটিতে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রথম টেস্ট ম্যাচটি তিনি জিমখানা মাঠে বসে দেখেছিলেন।

সাবেক ডানহাতি ব্যাটসম্যান রাইজি ১৯৩৮ থেকে ১৯৫০ সালের মধ্যে নয়টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছিলেন মুম্বাই ও বরোদার হয়ে। ২৩.০৮ গড়ে তিনি করেছিলেন ২৭৭ রান। তার ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংসটি ছিল ৬৮ রানের।

ভারতীয় ক্রীড়া পরিসংখ্যানবিদ মোহনদাস মেননের মতে, রাইজির মৃত্যুর পর নিউজিল্যান্ডের অ্যালান বার্জেস এখন সবচেয়ে বেশি বয়সী জীবিত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার। গেল ১ মে তিনি শততম জন্মদিন পালন করেছেন।

Comments

The Daily Star  | English

How the Sundarbans repeatedly saves Bangladesh from cyclones

In today's Star Explains, we take a look into how this mangrove forest has repeatedly helped reduce the severity of cyclones in Bangladesh

19m ago