টেকনাফে প্রথম করোনা আইসোলেশন ও চিকিৎসা কেন্দ্র চালু

করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবার জন্য দেশের সর্বদক্ষিণের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে চালু হয়েছে ৬০ শয্যার আইসোলেশন ও চিকিৎসা কেন্দ্র। স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গা নাগরিকের যাদের মধ্যে কোভিড-১৯ এর উপসর্গ আছে বা কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে তাদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে এই কেন্দ্রে।
ছবি: সংগৃহীত

করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবার জন্য দেশের সর্বদক্ষিণের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে চালু হয়েছে ৬০ শয্যার আইসোলেশন ও চিকিৎসা কেন্দ্র। স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গা নাগরিকের যাদের মধ্যে কোভিড-১৯ এর উপসর্গ আছে বা কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে তাদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে এই কেন্দ্রে।

আজ রোববার দুপুরে জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে এটি উদ্বোধন করেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) মোহাম্মদ মাহবুব আলম তালুকদার।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহবুবুর রহমান, রোহিঙ্গা শিবির-২৩ এর ইনচার্জ পুলক কান্তি চক্রবর্তী, আইআরসি বাংলাদেশ কান্ট্রি ডাইরেক্টর মানীষ কুমার আগারওয়াল।

ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটির সহায়তায় টেকনাফ উপজেলার সমুদ্র উপকূলবর্তী শামলাপুরে এই আইসোলেশন কেন্দ্রটি তৈরি হয়েছে।

মানীষ কুমার আগারওয়াল বলেন, ‘বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার শুরু হলে বাংলাদেশ সরকারকে করোনা মোকাবিলায় সহযোগিতা করার জন্য এগিয়ে আসে ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি (আইআরসি)। এপ্রিল মাস থেকেই আইআরসির ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি চিকিৎসক দল কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চালু করা সরকারি আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। শামলাপুর আইসোলেশন সেন্টারে ৬০ জনের একটি টিম সার্বক্ষণিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করবে।’

এই চিকিৎসা কেন্দ্রটি স্থানীয় জনগণের মতামত গ্রহণের মাধ্যমে তাদের সকল সুযোগ সুবিধার কথা বিবেচনা করে প্রস্তুত করা হয়েছে। এখানে একসঙ্গে ৬০ জন কোভিড-১৯ সন্দেহভাজন বা কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তি চিকিৎসা নিতে পারবেন। প্রতিটি বেডের সঙ্গে আছে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা, নারী এবং পুরুষের জন্য আলাদা ওয়ার্ড, সন্দেহভাজন এবং আক্রান্ত ব্যক্তির জন্য পৃথক ওয়ার্ড, তিন বেলা খাবার এবং ওষুধ সরবরাহের ব্যবস্থা, করোনা আক্রান্ত প্রসূতি মায়েদের জন্য বিশেষ সেবা ও ২৪ ঘণ্টা অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস। এছাড়া ও সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে এখানে রয়েছে ডব্লিউএইচও নির্দেশনা অনুয়ায়ী জীবানুমুক্তকরণ এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মাহবুব আলম তালুকদার বলেন, ‘এই চিকিৎসা কেন্দ্র টেকনাফের স্থানীয় অধিবাসী এবং রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য সহজলভ্য হবে এবং জীবন বাঁচতে সহায়ক হবে।’

কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহবুবুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘টেকনাফ উপজেলায় এটিই প্রথম আইসোলেশন ও চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র। এটি দেশের সর্ব দক্ষিণের উপজেলা টেকনাফবাসীর জন্য বড় প্রাপ্তি।’

 

Comments

The Daily Star  | English

Iranian Red Crescent says bodies recovered from Raisi helicopter crash site

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

4h ago