কাজ‌লের জা‌মিন আবেদন নামঞ্জুর

রাজধানীর শে‌রেবাংলা নগর থানায় দা‌য়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ফ‌টোসাংবা‌দিক শ‌ফিকুল ইসলাম কাজলের জা‌মিন আবেদন নামঞ্জুর ক‌রে‌ছেন আদালত।
অনুপ্রবেশের অভিযোগে মামলায় হাতকড়া পরিয়ে আদালতে হাজির করা হয় সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে। ফাইল ছবি

রাজধানীর শে‌রেবাংলা নগর থানায় দা‌য়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ফ‌টোসাংবা‌দিক শ‌ফিকুল ইসলাম কাজলের জা‌মিন আবেদন নামঞ্জুর ক‌রে‌ছেন আদালত।

আজ বুধবার ঢাকার মে‌ট্রোপ‌লিটন ম‌্যা‌জি‌স্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল এ আদেশ দেন।

গতকাল এ মামলায় কাজলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গত ৯ মার্চ রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় কাজ‌লসহ ৩২ জনের বিরু‌দ্ধে ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা‌টি দায়ের করেন মাগুরা-১ আস‌নের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখর।

এরপর ১০ ও ১১ মার্চ রাজধানী হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরও দু‌টি মামলা হয়।

তবে, ওই দুই‌ মামলায় এখনো কাজলকে গ্রেপ্তার দেখা‌নো হয়‌নি। গ্রেপ্তার দেখানোর পর মামলা দুটির জা‌মিন আবেদনের শুনা‌নি হ‌বে ব‌লেও জানান কাজলের আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।

গত ১০ মার্চ সন্ধ্যায় রাজধানীর হাতিরপুলের ‘পক্ষকাল’ অফিস থেকে বের হওয়ার পর সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল নি‌খোঁজ হন। পরের দিন ১১ মার্চ চকবাজার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন তার স্ত্রী জুলিয়া ফেরদৌসি নয়ন।

গত ১৩ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে শফিকুল ইসলাম কাজলকে সুস্থ অবস্থায় ফেরত দেওয়ার দাবি জানায় তার পরিবার। পরে ১৮ মার্চ রাতে কাজলকে অপহরণ করা হয়েছে অভিযোগ এনে চকবাজার থানায় মামলা করেন তার ছেলে মনোরম পলক।

ঢাকা থেকে নিখোঁজের ৫৩ দিন পর গত ২ মে রাতে যশোরের বেনাপোলের ভারতীয় সীমান্ত সাদিপুর থেকে অনুপ্রবেশের দায়ে ফটোসাংবাদিক ও দৈনিক পক্ষকালের সম্পাদক শফিকুল ইসলাম কাজলকে আটক করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

পর‌দিন অনুপ্রবেশের দায়ে বিজিবির দায়ের করা মামলায় আদালতে সাংবাদিক কাজলের জামিন মঞ্জুর হলেও পরে কোতোয়ালি মডেল থানায় ৫৪ ধারায় অপর একটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

1h ago