ডাকাতির সময় নৈশপ্রহরীকে হত্যা, ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলার বেকের বাজারে বন্দুকযুদ্ধে তিন ডাকাত নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এর আগে বেকের বাজারের নৈশপ্রহরীকে হত্যা করে ডাকাতরা। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে দাগনভূঁঞার ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবস্থিত মাতুভূঁঞা ইউনিয়নে বেকের বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
Feni Map
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলার বেকের বাজারে বন্দুকযুদ্ধে তিন ডাকাত নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এর আগে বেকের বাজারের নৈশপ্রহরীকে হত্যা করে ডাকাতরা। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে দাগনভূঁঞার ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবস্থিত মাতুভূঁঞা ইউনিয়নে বেকের বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা বাসিন্দারা বলেন, ভোরে একদল সশস্ত্র ডাকাত ট্রাক নিয়ে বেকের বাজারে আসে। তারা শরিয়ত অ্যান্ড ব্রাদার্স নামে একটি দোকানের তালা ভেঙ্গে মালপত্র ট্রাকে তুলতে থাকে। ঘটনাটি দেখে বাজারের নৈশপ্রহরী আবদুল মান্নান (৪০) চিৎকার শুরু করলে ডাকাতরা তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর বাজারের মসজিদের মাইকে ডাকাতির বিষয়টি জানানো হলে ব্যবসায়ীরা ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। খবর পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হলে ডাকাতদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই এক ডাকাত নিহত হন। গুলিবিদ্ধ হন তিন জন। দাগনভূঁঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার সময় আরও একজন মারা যান। এরা হলেন— দুলাল মাতব্বর (৪৫), বাবুল মোল্লা (৪০) ও মো. বিদ্যুৎ (৩২)। গুলিবিদ্ধ আরেক ডাকাত সদস্য দুলাল পেদাকে (৪২) পুলিশি হেফাজতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

দাগনভূঁঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসলাম সিকদার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় তৈরি পাইপগান, দুটি ছোরা, ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ট্রাক জব্দ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Peacekeepers can face non-deployment for rights abuse: UN

The UN peacekeepers can face non-deployment and even repatriation if the allegations of human rights against them are substantiated

8m ago