সিরিজ সেরা হওয়ার পর র‍্যাঙ্কিংয়েও লাফ ব্রডের

ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে দলকে জিতিয়েছেন, প্রথম টেস্টে জায়গা হারানোর পর ফিরে দারুণভাবে নিজের ফুরিয়ে না যাওয়ার বার্তা দিয়েছেন, ৫০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করে হয়েছেন সিরিজ সেরা। এতসব কিছুর ফলও তাই হাতেনাতে পেয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। আইসিসি টেস্ট বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সাত ধাপ উত্তরণ হয়েছে তার।
 Stuart Broad
ছবি: এএফপি

ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে দলকে জিতিয়েছেন, প্রথম টেস্টে জায়গা হারানোর পর ফিরে দারুণভাবে নিজের ফুরিয়ে না যাওয়ার বার্তা দিয়েছেন, ৫০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করে হয়েছেন সিরিজ সেরা। এতসব কিছুর ফলও তাই হাতেনাতে পেয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। আইসিসি টেস্ট বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সাত ধাপ উত্তরণ হয়েছে তার।

নতুন প্রকাশিত র‍্যাঙ্কিংয়ে ইংলিশ পেসার আছেন তিন নম্বরে। সেরা দশে ইংল্যান্ডের একমাত্র বোলারও তিনিই।

র‍্যাঙ্কিংয়ে আগের মতই এক নম্বরে আছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। দুইয়ে আছেন নিউজিল্যান্ডের নেইল ওয়েগনার। আর ব্রডের ঠিক পরে চার নম্বরে আরেক কিউই পেসার টিম সাউদি।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ের দুই থেকে তিন ধাপ পিছিয়ে পাঁচে নেমে গেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি হেরেও ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জেতে ইংল্যান্ড। সাউদাম্পটনে সিরিজের প্রথম টেস্টে দেশের মাঠে আট বছর পর একাদশে জায়গা হারান ব্রড। জায়গা হারানোর ক্ষোভও গণমাধ্যমে আড়াল করেননি তিনি। ওই টেস্ট ক্যারিবিয়ানদের কাছে ধরাশায়ী ইংল্যান্ডের ধারহীন পেস আক্রমণ হয় প্রশ্নবিদ্ধ। ম্যানচেস্টারে দ্বিতীয় টেস্টে ফিরেই দলের জয়ে অবদান রাখেন ব্রড। শেষ টেস্টে তো দারুণ মুন্সিয়ানায় একাই হিরো হয়েছেন তিনি।

 

Comments