বিতর্কিত সীমান্ত অঞ্চলে চীন-পাকিস্তানের ৬শ কোটি ডলারের রেল প্রকল্প

কাশ্মীর সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অবকাঠামোগত উন্নয়নে সহযোগিতা বাড়িয়েছে চীন ও পাকিস্তান। বিতর্কিত ওই অঞ্চলে সীমান্ত ইস্যুতে ভারতের সঙ্গে বিরোধ রয়েছে দেশ দুটির।
পাকিস্তানের ইসলামাবাদ থেকে চীনের কাশগড় পর্যন্ত ‘ফ্রেন্ডশিপ হাইওয়ে’। ফাইল ফটো এএফপি

কাশ্মীর সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অবকাঠামোগত উন্নয়নে সহযোগিতা বাড়িয়েছে চীন ও পাকিস্তান। বিতর্কিত ওই অঞ্চলে সীমান্ত ইস্যুতে ভারতের সঙ্গে বিরোধ রয়েছে দেশ দুটির।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট জানায়, বুধবার, চীন-পাকিস্তান ইকোনোমিক করিডোরের অংশ হিসেবে ওই অঞ্চলের রেল যোগাযোগ উন্নয়নের জন্য ৬ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার অনুমোদন দিয়েছে ইসলামাবাদ। এর আগে, চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের ইসলামাবাদ থেকে কাশগড় পর্যন্ত একটি বৃহত্তর সড়ক প্রকল্পের অংশ হিসেবে চীনের থাকোট থেকে হাভেলিয়ান পর্যন্ত ১১৮ কিলোমিটার সড়ক খুলে দেওয়ার ঘোষণা দেয় বেইজিং। নতুন সড়কটি জম্মু কাশ্মীরের পাশ দিয়ে নির্মিত হবে। ভারতের লাদাখ প্রদেশের কাশ্মীরের ওই অঞ্চলটি নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদ উভয়ই নিজেদের বলে দাবি করে।

গত বছর ভারতের সংবিধানে কাশ্মীরকে বিশেষ স্বায়ত্বশাসিত এলাকার মর্যাদা দেওয়া ৩৭০ ধারা বাতিল করে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

চীনের সাংহাই মিউনিসিপ্যাল সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের দক্ষিণ এশিয়া বিশেষজ্ঞ ওয়াং ডেহুয়া বলেন, ‘চীন ও পাকিস্তানের যোগাযোগ প্রকল্পগুলো নিয়ে ভারত বেশ চিন্তিত। এ অঞ্চলের কৌশলগত অবস্থান অনেক গুরুত্বপূর্ণ। মহাসড়ক প্রকল্পটি এটাই দেখিয়ে দিয়েছে।’

গত বছর অক্টোবরে উত্তরে লাদাখ ও দক্ষিণে জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে ভারত। এ নিয়ে সমালোচনা করে ইসলামাবাদ ও বেইজিং।

চলতি সপ্তাহে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র প্রকাশ করেন, যেখানে জম্মু ও কাশ্মীরকে ভারত ‘অবৈধভাবে’ দখল করছে বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

দিল্লি পাকিস্তানের সদ্যপ্রকাশিত এ মানচিত্রকে ‘রাজনৈতিকভাবে অযৈাক্তিক’ বলে উল্লেখ করে।

বুধবার, চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, কাশ্মীর নিয়ে একপাক্ষিক যে কোনও পরিবর্তনই ‘অবৈধ’ ও ‘অকার্যকর’।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal: PDB cuts power production by half

PDB switched off many power plants in the coastal areas as a safety measure due to Cyclone Rema

1h ago