আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারে তুরস্ক

ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শান্তি চুক্তির কঠোর সমালোচনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়া।
রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়া। ফাইল ফটো রয়টার্স

ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শান্তি চুক্তির কঠোর সমালোচনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়া। 

তিনি জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন ও রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের বিষয়ে পর্যালোচনা করছে তুরস্ক।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ ধরনের আচরণ ইতিহাস কখনও ক্ষমা করবে না।

শুক্রবার, এরদোয়া জানান, ‘ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ বরদাস্ত করার মতো না। এখন, প্যালেস্টাইন হয় আমিরাতে তাদের দূতাবাস বন্ধ করবে অথবা প্রত্যাহার করে নেবে। একই বিষয় আমাদেরও করা যৌক্তিক।’

‘আমি তাকে (পররাষ্ট্রমন্ত্রী)কে বলেছি আবুধাবি নেতৃত্বের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করার বা আমাদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে আনার দিকেও আমরা পদক্ষেপ নিতে পারি।’

গত ১৩ আগস্ট মধ্যপ্রাচ্যের দুই দেশ ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক সম্পূর্ণ স্বাভাবিক করতে একটি শান্তি চুক্তিতে পৌঁছায় দুই দেশ। এতে মধ্যস্ততা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ফিলিস্তিনি নেতারা এই ঘোষণাকে ‘ফিলিস্তিনিদের পিঠে ছুরি মারা’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

মুসলিম বিশ্বের প্রভাবশালী নেতা মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘এই চুক্তি মুসলিম বিশ্বকে বিভক্ত করবে, লড়াইয়ের মুখোমুখি করে তুলবে এবং তা ইসরায়েলের আগুনেই তেল ঢালবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

49m ago