আবুধাবি পৌঁছানোর পর ফেরত পাঠানো হলো ৬৮ প্রবাসীকে

অভিবাসন ছাড়পত্রের প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ করতে না পারায় আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬৮ বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।
হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। স্টার ফাইল ফটো

অভিবাসন ছাড়পত্রের প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ করতে না পারায় আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬৮ বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

আজ সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তারা ঢাকায় ফিরে এসেছেন বলে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

বিমানবন্দরের এক কর্মকর্তা জানান, আবুধাবিতে পৌঁছালেও ৬৮ জনের ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স ছিল না। তাদের মধ্যে ছয় জন গত রাতে বাংলাদেশ থেকে রওনা দিয়েছিলেন, আর বাকিরা গিয়েছিলেন শুক্রবার।

বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের এক কর্মকর্তা জানান, আবুধাবি থেকে ফিরে আসা বেশ কয়েকজনের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। তারা অভিবাসন প্রত্যাখ্যানের বিষয়ে বেশ কয়েকটি কারণের কথা উল্লেখ করেছেন।

প্রত্যাবর্তনকারীদের একজন জানিয়েছেন যে তিনি পুনঃপ্রবেশের অনুমতি ছাড়াই সেখানে গিয়েছেন। অপর এক যাত্রী আবুধাবি বিমানবন্দরে পৌঁছে সেখান থেকে দুবাই যেতে চেয়েছিলেন। তবে, সেখানকার কর্তৃপক্ষ তাকে সেই ক্লিয়ারেন্স দিতে অস্বীকার করে বলে তিনি জানান।

এই কর্মকর্তা জানান, প্রবাসীরা ছুটি শেষে তাদের কর্মস্থল সংযুক্ত আরব আমিরাতে ফিরছিলেন।

ফেনীর এক প্রবাসী বাহার দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, শুক্রবার তিনি বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে আবুধাবি বিমানবন্দরে যান। তার কাছে পুনঃপ্রবেশের অনলাইন অনুমোদন ছিল না বলে তাকে ফিরে আসতে হয়েছে।

গত ১০ বছর ধরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে চাকরিরত বাহার জানান, তিনি ৬ আগস্ট অনলাইন ফর্ম পূরণ করেছেন। কিন্তু, সময়মতো পুনঃপ্রবেশের অনুমতি নিশ্চিত করে কোনও উত্তর পাননি।

বাহার আরও বলেন, নিয়মানুযায়ী তিনি বাংলাদেশের একটি অনুমোদিত ল্যাব এবং আবুধাবি বিমানবন্দরে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করিয়েছেন।

তিনি এ সমস্যার সমাধানে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানান।

যোগাযোগ করা হলে বিমানের উপমহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জানান, গতকাল কিছু প্রবাসী ফেরত এসেছেন।

তিনি অবশ্য এ ঘটনার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি বলেন, আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত তিনি এ বিষয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক বার্তা পাননি।

তবে, বিমানের কর্মকর্তারা দ্য ডেইলি স্টারকে ফোনে জানিয়েছেন, বিমানে দুই শতাধিক যাত্রী ছিল।

বিমানের ২৯ জুলাই এর এক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, বাংলাদেশ থেকে দুবাই ও আবুধাবি ভ্রমণকারী যাত্রীদের রওনা দেওয়ার ৭২ ঘণ্টা আগে অনুমোদিত ল্যাব থেকে কোভিড-১৯ পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট নিতে হবে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে কয়েক লাখ বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিক আছেন। তাদের অনেকে ছুটিতে বাড়িতে এসে মহামারি কারণে ফ্লাইট স্থগিত থাকায় আটকা পড়েছেন।

আজ এক ভার্চুয়াল আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকের পর প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) আবুধাবি বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশিদের ফেরত আসার বিষয়ে একটি প্রতিবেদন দাখিলের পর, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ বিমান ও এয়ার অ্যারাবিয়ার ফ্লাইটে প্রবাসীদের ফেরত আসার বিষয়ে তদন্ত করে বেবিচককে আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরও জানান, প্রবাসীদের সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির ফ্লাইটে বা সরকারি ব্যবস্থাপনায় পুনরায় পাঠানো হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Youth killed falling into canal in Ctg

A young man was killed falling into a canal in the Asadganj area of port city this afternoon

56m ago