পাঁচ মাস পরে নেটে ফেরা নিয়ে ভয়ে ছিলেন কোহলি

কোচ মাইক হেসনের তত্ত্বাবধায়নে ডেল স্টেইন, যুজবেন্দ্র চাহালদের নিয়ে অনুশীলন করেন কোহলি।
Virat Kohli
ছবি: সংগ্রহ

করোনাভাইরাসের কারণে আর সবার মতই লম্বা সময় ঘরে বন্দি থাকতে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের। ফিটনেস ট্রেনিংয়ের বাইরে হালকা স্কিল অনুশীলনেরও সুযোগও ছিল না বিরাট কোহলিদের। আইপিএল খেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গিয়ে পাঁচ মাসে প্রথম ব্যাট হাতে নেন কোহলি। এতটা দীর্ঘ সময় পর নেটে ব্যাট করতে গিয়ে তিনি নাকি ভয়ে ভয়ে ছিলেন।

আইপিএলের ১৩তম আসর খেলতে গত সপ্তাহে দুবাইতে এসে পৌঁছায় কোহলিদের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু (আরসিবি)। প্রথম ছয়দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন শেষ করে শনিবার অনুশীলন শুরু করে তারা।

কোচ মাইক হেসনের তত্ত্বাবধায়নে ডেল স্টেইন, যুজবেন্দ্র চাহালদের নিয়ে অনুশীলন করেন কোহলি।

নেটে অনায়াসে লম্বা সময় কাটিয়ে আসার পর দলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বলেন, নামার আগে মনের ভেতর ভয় জমা ছিল তার,  ‘নেটে ব্যাট করতে নামার আগে বেশ খানিকটা ভয়, ভয় লাগছিল। তবে যেমন আশঙ্কা করেছিলাম তার থেকে অভিজ্ঞতাটা ভালোই হয়েছে।’

কোহলি মনে করেন, এতদিন পর ব্যাট করতে নেমেও কোন সমস্যা না হওয়ায় ফিটনেস ঠিক থাকা,  ‘আমি গত পাঁচ মাসে ব্যাট হাতেই নেইনি, সেজন্য চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু লকডাউনের সময়টায় প্রচুর ফিটনেস ট্রেনিং চালিয়েছে।  এখন নিজেকে ফিট মনে হচ্ছে। সেটা বোধহয় কাজে দিয়েছে।’

আরসিবি অনুশীলন সেশন শুরুর আগেই কোহলির একটি সুখবর চাউর হয়েছে। বলিউড অভিনেত্রী স্ত্রী আনুশকা শর্মা আর কোহলির  প্রথম সন্তান আসতে যাচ্ছে। সতীর্থরা তাই অনুশীলন সেরে অধিনায়ককে কেক কেটে অভিনন্দিত করছেন।

চলতি বছরের আইপিএল শুরু হওয়ার কথা ছিল এপ্রিল মাসে। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে তা পিছিয়ে যায়, এক সময় অনিশ্চিতও হয়ে পড়ে। একই কারণে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে যাওয়ায় সেপ্টেম্বর-নভেম্বরের এই সময়টা আইপিএলের জন্য বেছে নেয় বিসিসিআই। তবে ভারতে করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের তিন শহর দুবাই, আবুধাবি ও শারজাহকে ভেন্যু হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। এসব ভেন্যুতে 'বায়ো-সিকিউর' পরিবেশ তৈরি করে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে ফ্রেঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর। 

Comments

The Daily Star  | English

Peacekeepers can face non-deployment for rights abuse: UN

The UN peacekeepers can face non-deployment and even repatriation if the allegations of human rights against them are substantiated

18m ago