ইউএস ওপেন ২০২০: শুরুর আগে করোনার ধাক্কা

শুরুর আগেই শেষ হয়ে গেছে বেনোয়া পেয়ারের ইউএস ওপেন। ফ্রান্সের এই টেনিস খেলোয়াড় আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে।
djokovic
ফাইল ছবি: রয়টার্স

ইউএস ওপেন কোর্টে গড়াতে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি। করোনাভাইরাসের অনাকাঙ্ক্ষিত বিরতির পর এটিই হতে যাচ্ছে প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসর। কিন্তু শুরুর আগেই শেষ হয়ে গেছে বেনোয়া পেয়ারের ইউএস ওপেন। ফ্রান্সের এই টেনিস খেলোয়াড় আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে।

ফরাসি গণমাধ্যম লেকিপের বরাতে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ১৭ নম্বর বাছাই পেয়ারকে প্রতিযোগিতার সূচি থেকে ইতোমধ্যে বাদ দিয়েছে আয়োজকরা। তিনি বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন। পেয়ার কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার পর ফ্রান্সের অন্য চার প্রতিযোগীকেও সেলফ-আইসোলেশনে যেতে বলা হয়েছে।

গেল সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে পা রাখেন পেয়ার। ইউএস ওপেনে নামার আগে ওয়েস্টার্ন অ্যান্ড সাউদার্ন ওপেনে অংশ নিয়ে নিজেকে ঝালিয়ে নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ওই প্রতিযোগিতার প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ চলাকালীন অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরবর্তীতে তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মেলে।

সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ইউএস ওপেনে অংশ নিচ্ছেন না সময়ের অন্যতম দুই সেরা তারকা রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদাল। কয়েক মাস আগে হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করানো ফেদেরারের চলতি বছর আর কোর্টে নামা হবে না। আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নাদাল নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে।

তবে র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর তারকা নোভাক জোকোভিচের খেলা উপভোগ করতে পারবেন দর্শকরা। ওয়েস্টার্ন অ্যান্ড সাউদার্ন ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়ে প্রস্তুতিও ভালোভাবে সেরেছেন ১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী এই সার্বিয়ান। এর আগে তিনবার (২০১১, ২০১৫ ও ২০১৮) ইউএস ওপেনের সেরার মুকুট মাথায় তুলেছেন তিনি।

এবারের ইউএস ওপেনে রাখা হয়নি দর্শক প্রবেশের সুযোগ। বৈশ্বিক মহামারির কারণে পুরো আসরটি আয়োজিত হচ্ছে বায়ো-সিকিউর বাবলের (জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে) মধ্যে। সুরক্ষা নিশ্চিত করতে যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, তাতে সন্তুষ্টি জানিয়েছেন দুই নম্বর বাছাই ডমিনিক থিম।

‘এই মুহূর্তে এখানকার চেয়ে নিরাপদ কোনো জায়গা নেই বিশ্বে। হয়তো আপনি নিজেকে গুহায় বা অন্য কোনো স্থানে আটকে রাখতে পারেন, কে জানে, (হয়তো) সমুদ্রের মাঝখানে। অন্যথায়, এখানেই (থাকা) সবচেয়ে নিরাপদ। তারপরও কিছু না কিছু ঘটতে পারে। বেনোয়ার ক্ষেত্রে যেমনটা দেখা গেল। আমরা আশা করছি, অন্য কেউ যেন আক্রান্ত হয়ে না থাকে।’

Comments

The Daily Star  | English

Small businesses, daily earners scorched by heatwave

After parking his motorcycle and removing his helmet, a young biker opened a red umbrella and stood on the footpath.

54m ago