১১ বার খারিজ হলো কাজলের জামিন আবেদন: মনোরম পলক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলের বিরুদ্ধে মামলায় জামিন আবেদন আজ আবার খারিজ হয়েছে।
অনুপ্রবেশের অভিযোগে মামলায় হাতকড়া পরিয়ে আদালতে হাজির করা হয় সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে। ফাইল ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলের বিরুদ্ধে মামলায় জামিন আবেদন আজ আবার খারিজ হয়েছে।

কাজলের ছেলে মনোরম পলক সন্ধ্যায় দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, এ নিয়ে তিন মামলায় ১১তম বারের মতো আমাদের জামিন আবেদন খারিজ হলো। আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর আরেকটি মামলায় জামিন আবেদনের শুনানির তারিখ রয়েছে। সেখানে খারিজ হলে আমরা হাইকোর্টে জামিন আবেদন নিয়ে যাব।

আজ কাজলের আইনজীবীর জামিন আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মেট্রোপলিটন সেশন জজ কোর্টের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েস তা খারিজ করেন। এর আগে ২৯ জুলাই চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত এই একই মামলায় জামিন আবেদন খারিজ করেছিলেন।

শুনানিতে আজ কাজলের আইনজীবী মো. জায়দুর রহমান আদালতকে বলেন, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপসহ নানা রোগে ভুগছেন কাজল। তার এক হাত প্যারালাইজড হয়ে রয়েছে। নিখোঁজ থাকার ৫৩ দিন চোখ বাঁধা থাকায় তিনি ঠিকমত দেখতেও পারছেন না।

আইনজীবী বলেন, এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে কাজলের জামিন চাওয়া হয়। তবে বাদীপক্ষ তার জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, কাজল যুবলীগ সম্পর্কে মানহানিকর বক্তব্য পোস্ট করেছেন।

গত ১১ মার্চ রাজধানীর কামরাঙ্গির চর থানায় যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুমাইয়া চৌধুরী বন্যা কাজলের বিরুদ্ধে এই মামলাটি করেছিলেন।

গত ১০ মার্চ সন্ধ্যায় রাজধানীর হাতিরপুলের ‘পক্ষকাল’ অফিস থেকে বের হওয়ার পর সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল নি‌খোঁজ হন।

নিখোঁজের ৫৩ দিন পর গত ২ মে রাতে যশোরের বেনাপোলের ভারতীয় সীমান্ত সাদিপুর থেকে অনুপ্রবেশের দায়ে কাজলকে আটকের কথা জানায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। পরে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে কারাগারে পাঠানো হয়।

 

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka traffic still light as offices, banks, courts reopen

After five days of Eid and Pahela Baishakh vacation, offices, courts, banks, and stock markets opened today

46m ago