ইউএস ওপেন

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জিতে ফাইনালে জেভরেভ, প্রতিপক্ষ থিম

নতুন রাজার দেখা দেখা পেতে যাচ্ছে ইউএস ওপেন।
alexander zverev
ছবি: রয়টার্স

খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে নিজেকে নিংড়ে দিয়ে জয়ের আনন্দে মাতলেন আলেক্সান্দার জেভরেভ। ছিটকে যাওয়ার শঙ্কা উড়িয়ে প্রথমবারের মতো জায়গা করে নিলেন কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসরের ফাইনালে। ইউএস ওপেনের শিরোপা নির্ধারণী মঞ্চে তার প্রতিপক্ষ দমিনিক থিমও জয় পেলেন তুমুল লড়াই শেষে।

শনিবার পাঁচ সেটে গড়ানো সেমিফাইনালে ৩-৬, ২-৬, ৬-৩, ৬-৪ ও ৬-৩ গেমে স্পেনের পাবলো ক্যাররেনো বুস্তাকে হারান পঞ্চম বাছাই জেভরেভ। নিউইয়র্কের ফ্লাশিং মিডোসে প্রথম দুই সেটে হেরে বাদ পড়ার খুব কাছে চলে গিয়েছিলেন এই জার্মান তারকা। কিন্তু হাল না ছেড়ে দিয়ে মনোবল শক্ত রেখে স্মৃতির পাতায় খোদাই করে রাখার মতো একটি ম্যাচ উপহার দেন তিনি। পরের তিন সেটে টানা জিতে শেষ হাসি হাসেন ৩-২ ব্যবধানে।

আরেক সেমিতে সরাসরি সেটে জিতেছেন দ্বিতীয় বাছাই থিম। তবে অস্ট্রিয়ান তারকাকে বেশ ভালো পরীক্ষা দিতে হয়েছে রাশিয়ার দানিল মেদভেদেভের বিপক্ষে। আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে থিম প্রথম সেটে সহজেই জয় তুলে নিলেও পরের দুটি গড়ায় টাইব্রেকারে। শেষ পর্যন্ত স্নায়ুচাপ জয় করে ৬-২, ৭-৬ (৯-৭), ৭-৬ (৭-৫) গেমে জেতেন তিনি।

dominic thiem
ছবি: রয়টার্স

আগামীকাল রবিবার ২০২০ ইউএস ওপেনের ফাইনালে মুখোমুখি হবেন জেভরেভ ও থিম। দুজনের সামনেই রয়েছে ইতিহাস গড়ার সুবর্ণ সুযোগ। তাদের কেউই এখন পর্যন্ত কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার স্বাদ পাননি।

২৩ বছর বয়সী জেভরেভ প্রথমবার ফাইনালে উঠলেও থিমের এটি চতুর্থ গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনাল। কিন্তু আগের তিনবারই হারের জ্বালায় পুড়তে হয়েছে তাকে। চলতি বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে ২-১ সেটে এগিয়ে গিয়েও নোভাক জোকোভিচের কাছে পরাজয় স্বীকার করেছিলেন তিনি।

বলাই বাহুল্য, নতুন রাজার দেখা দেখা পেতে যাচ্ছে ইউএস ওপেন। উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জেতার সবশেষ নজির স্থাপন করেছিলেন ক্রোয়েশিয়ার মারিন সিলিচ। তিনি ২০১৪ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন ইউএস ওপেনেই।

Comments

The Daily Star  | English
Corruption in Bangladesh civil service

The nine lives of a corrupt public servant

Let's delve into the hypothetical lifelines in a public servant’s career that help them indulge in corruption.

9h ago