শীর্ষ খবর

বাংলাদেশের জন্য ফাদার টিম ছিলেন এক স্মরণীয় অধ্যায়: ড. মুহাম্মদ ইউনূস

বাংলাদেশের জন্য ফাদার টিম এক স্মরণীয় অধ্যায় ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস। তিনি বলেন, ‘ফাদার টিমের মৃত্যুতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত হয়েছি। এদেশের জন্য তার অবদান ছিল খুবই দৃশ্যমান। দেশের যেকোনো দুর্যোগে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে, সাহসের সঙ্গে এগিয়ে এসেছেন। মানবিক সহায়তার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন সুউচ্চ স্তম্ভের মতো। তিনি তার সমগ্র জীবন এদেশে কাটিয়েছেন এবং দরিদ্র-অসহায় মানুষদের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন।
ফাদার রিচার্ড উইলিয়াম টিম। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের জন্য ফাদার টিম এক স্মরণীয় অধ্যায় ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস। তিনি বলেন, ‘ফাদার টিমের মৃত্যুতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত হয়েছি। এদেশের জন্য তার অবদান ছিল খুবই দৃশ্যমান। দেশের যেকোনো দুর্যোগে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে, সাহসের সঙ্গে এগিয়ে এসেছেন। মানবিক সহায়তার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন সুউচ্চ স্তম্ভের মতো। তিনি তার সমগ্র জীবন এদেশে কাটিয়েছেন এবং দরিদ্র-অসহায় মানুষদের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন।

ফাদার টিমের মৃত্যুতে দেওয়া শোকবার্তায় এসব কথা বলেছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস।

শোকবার্তায় তিনি আরও বলেন, ইন্ডিয়ানার নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮ সালের এপ্রিলে তার সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়। আমি বিশ্ববিদ্যালয়টির বার্ষিক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়েছিলাম। সেখানকার অধ্যাপকদের একজন আমাকে বলছিলেন যে, ফাদার টিম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই আছেন। ওই অধ্যাপক বলছিলেন যে, তিনি (ফাদার টিম) দুঃখ প্রকাশ করেছেন যে, তিনি বক্তৃতা অনুষ্ঠানে আসতে পারছেন না। আমি তখনই তার সঙ্গে দেখা করার সিদ্ধান্ত নেই এবং অনুষ্ঠানের কাজ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করি। আমি হতাশ হই যখন আমি তাকে একটি ছোট্ট বৃদ্ধনিবাসে আরও পাঁচ জন বৃদ্ধ মানুষের সঙ্গে দেখতে পাই। জনগণের সবচেয়ে কাছের মানুষটি এখন তার ভালবাসার মানুষদের কাছ থেকে কত দূরে। তাকে হুইল চেয়ারে নিয়ে আসলেন নার্স।

আমার কাছ থেকে তিনি বাংলাদেশের সকল সংবাদ জানতে চেয়েছিলেন, জানতে চেয়েছিলেন তার পরিচিতজনদের সম্পর্কে। নার্স আমাকে বার বার মনে করিয়ে দিচ্ছিলেন যে, কথা বলা তার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু, ফাদারের কথা কিছুতেই থামানো যাচ্ছিল না। তিনি বারবারই বাংলাদেশের কথা, এখানকার মানুষের কথা বলে যাচ্ছিলেন, তাদের সম্পর্কে জানতে চাচ্ছিলেন। শেষে নার্স অনেকটা জোর করেই তাকে তার কক্ষে নিয়ে যান।

বাংলাদেশের জন্য তার হৃদয়ের টান আমি প্রতি মুহূর্তে অনুভব করছিলাম। তিনি বারবার বলছিলেন, ‘আমি বাংলাদেশে মরতে এবং সেখানেই সমাহিত হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু, কেউ আমার কথা শুনছে না। আমি খুব অসহায়।’

ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, ফাদার টিম, বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে আপনি চিরকাল বেঁচে থাকবেন। আপনি তাদেরকে ভালোবেসেছেন। তারাও আপনাকে ভালোবেসে যাবে। তারা আপনাকে সবসময় স্মরণ করবে।

সবশেষে শোকবার্তায় তিনি বলেন, বিদায় ফাদার টিম! আপনার মৃত্যুতে বাংলাদেশ একজন অকৃত্রিম বন্ধুকে হারাল। এই দেশ যত দুর্যোগ মোকাবিলা করেছে, তার প্রতিটি ক্ষেত্রেই আপনার স্নেহময় হাতের স্পর্শ লেগে আছে। মহান আল্লাহ আপনার আত্মাকে চির শান্তি দেক।

আরও পড়ুন:

মুক্তিযুদ্ধে ফাদার টিম

বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু ফাদার রিচার্ড উইলিয়াম টিম মারা গেছেন

Comments

The Daily Star  | English

Lull in Gaza fighting despite blasts in south

Israel struck Gaza on Monday and witnesses reported blasts in the besieged territory's south, but fighting had largely subsided on the second day of an army-declared "pause" to facilitate aid flows

2h ago