শীর্ষ খবর

যুক্তরাজ্যের সহায়তায় ২৩ হাজার প্রান্তিক পরিবারকে এমজেএফের নগদ সহায়তা

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৮টি জেলার প্রায় ২৩ হাজার প্রান্তিক পরিবারকে নগদ সহায়তা দিতে শুরু করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ)।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৮টি জেলার প্রায় ২৩ হাজার প্রান্তিক পরিবারকে নগদ সহায়তা দিতে শুরু করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ)।

যুক্তরাজ্য সরকারের কমনওয়েলথ এবং ডেভেলপমেন্ট অফিসের সহায়তায় (এফসিডিও) এক্সক্লুডেট পিপলস রাইটস ইন বাংলাদেশ (ইপিআর) কর্মসূচীর আওতায় এই কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

১৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করে এই কর্মসূচির প্রথম ধাপে ৩৮টি জেলার ২৩ হাজার প্রান্তিক পরিবারকে ৫৭.৫ মিলিয়ন টাকা দিয়েছে এমজেএফ।

যে পরিবারগুলো করোনাকালে সামাজিক নিরাপত্তা বলয় কর্মসূচির বাইরে রয়েছে, তাদেরই অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে এই নগদ সহায়তা প্রদান কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

এই তালিকা তৈরিতে স্থানীয় প্রশাসন, কমিউনিটি নেতা এবং এমজেএফের ৫৪টি সহযোগী সংস্থার তরুণ স্বেচ্ছাসেবীদের সহায়তা নেওয়া হয়েছে।

মূলত সমতল ও পাহাড়ের বসবাসকারী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী, চা শ্রমিক, জেলে, সহিংসতার শিকার বিধবা ও প্রতিবন্ধীরা প্রথম ধাপে এই সাহায্য পাচ্ছেন।

ঢাকা ও অন্যান্য বড় শহরে দলিত জনগোষ্ঠী, যৌনকর্মী এবং এলজিবিটি জনগোষ্ঠীকেও এই সামাজিক নিরাপত্তামূলক সহায়তার আওতায় আনা হবে। কেননা, তাদের অনেকেই এই করোনাকালে কোনো সহযোগিতা পাননি।

অর্থের সুষ্ঠ বিতরণ নিশ্চিত করতে প্রতিটি কমিউনিটিতে অর্থ বিতরণ এবং অভিযোগ জানানোর জন্য আলাদা কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়েছে।

এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম যুক্তরাজ্য সরকারের এই সহায়তা প্রদান উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন, ‘তাদের এই সহায়তা কার্যক্রম প্রশংসনীয়। কারণ, এর মাধ্যমে ২৩ হাজার প্রান্তিক মানুষ সহায়তা পাচ্ছেন, যারা করোনাকালে অনেক বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আগামী তিন মাস সুন্দরভাবে চলার জন্য এই অর্থ সহায়তা তাদের জন্য খুব জরুরি ছিল।’

Comments

The Daily Star  | English

Violence centring quota protest: Four more hurt in earlier clashes die

Four more people, including a six-year-old child, who sustained injuries during clashes centring the quota reform movement earlier, died in different hospitals today

32m ago