কোভিড টাস্কফোর্সের সিদ্ধান্ত না মানলে সিরিজ বাতিল: লঙ্কান বোর্ড

স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে কঠিন শর্ত বেঁধে দেওয়ায় শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) এরপর শর্ত শিথিল করতে কম চেষ্টা করেনি। নিজ দেশের ক্রীড়া মন্ত্রী নামাল রাজাপাকসে ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গঠিত কোভিড টাস্কফোর্সের সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গেও বৈঠক করেছে তারা। তবে আশার খবর মেলেনি।
Firoze_Ahmed_25Sep20.jpg
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে কঠিন শর্ত বেঁধে দেওয়ায় শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) এরপর শর্ত শিথিল করতে কম চেষ্টা করেনি। নিজ দেশের ক্রীড়া মন্ত্রী নামাল রাজাপাকসে ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গঠিত কোভিড টাস্কফোর্সের সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গেও বৈঠক করেছে তারা। তবে আশার খবর মেলেনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোয় অনুষ্ঠিত হওয়া এক সংবাদ সম্মেলনে এসএলসি জানিয়েছে, দেশটির কোভিড টাস্কফোর্সের সিদ্ধান্ত বিসিবি যদি না মানে, সেক্ষেত্রে বাতিল হয়ে যাবে তিন টেস্টের সিরিজটি।

এসএলসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যাশলি ডি সিলভা বলেছেন, ‘কোভিড টাস্কফোর্স থেকে আমরা যে সাড়াই পাই না কেন, তা বাংলাদেশ বোর্ডকে জানানো হবে। টাস্কফোর্স যে (স্বাস্থ্য) নির্দেশিকা দিবে, সেগুলো যদি তারা (বিসিবি) মানতে প্রস্তুত না থাকে, তাহলে সফরটি বাতিল করতে আমরা বাধ্য হব এবং পরিবর্তিত সূচিতে আগামী বছর কিংবা পরের বছর (আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের) একই চক্রে সফরটি আয়োজন করব।’

তিনি যোগ করেছেন, ‘শ্রীলঙ্কান কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে খুবই সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব দেখিয়েছে। এমনকি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গেও আমরা আলোচনায় বসেছিলাম। তারা সবাই খুব সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব দেখিয়েছে। কিন্তু যারাই (এখানে) আসুক না কেন, তাদেরকে স্বাস্থ্য নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। যারা সামনে এলপিএল (লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ) আয়োজন করতে যাচ্ছে, তাদেরকেও আমরা জানিয়েছি যে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রাথমিক নির্দেশনা মেনে অবশ্যই খেলোয়াড়সহ সবাইকে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।’

এসএলসির সেক্রেটারি মোহন ডি সিলভা অবশ্য এখনই আশা ছাড়তে নারাজ, ‘তারা (বিসিবি) আমাদেরকে তাদের চাহিদাগুলো পাঠিয়েছে। তবে আপনারা জানেন, একটি দেশ হিসেবে আমরা এই বৈশ্বিক মহামারিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে দারুণ সফল হয়েছি। সেকারণে কঠোর স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মানতে হচ্ছে আমাদের। আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে কৃতজ্ঞ যারা ব্যাপক আগ্রহ দেখিয়েছেন এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পুনরায় চালুর বিষয়ে আমাদেরকে উৎসাহ দিয়েছেন। আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত রেখেছি এবং নিশ্চিত যে, আমরা এটার সমাধান করতে পারব। আর আশা করছি, শিগগিরই বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কায় এসে পৌঁছাবে।’

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ দলের আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কায় যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যকার জটিলতার অবসান না হওয়ায় পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুসারে দেশ ছাড়া হচ্ছে না মুমিনুল হক-মুশফিকুর রহিমদের। তাই খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ ও কর্মকর্তাদের শুক্রবারের করোনা পরীক্ষাও স্থগিত করেছে বিসিবি।

উল্লেখ্য, ৩০ জনের বেশি নিয়ে সফর না করা, ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকা, কোয়ারেন্টিনে থাকা অবস্থায় হোটেল কক্ষ থেকে একেবারেই বের না হওয়াসহ এসএলসির বেশ কিছু শর্তে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল বিসিবি। এসব শর্ত ‘ক্রিকেট ইতিহাসে বিরল’ উল্লেখ করে সিরিজ খেলতে যাওয়া অসম্ভব বলে স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছিলেন সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

অনিশ্চয়তার মাঝেও শ্রীলঙ্কা সফর হবে ধরে নিয়ে গত রবিবার থেকে জৈব-সুরক্ষা বলয়ে ঢুকে স্কিল ট্রেনিং ক্যাম্প করছে বাংলাদেশ দল। তবে এসএলসির সবশেষ সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য নির্দেশনা শিথিলের কোনো আভাস না থাকায় সফর নিয়ে নতুন করে তৈরি হয়েছে জোরালো শঙ্কা।

Comments

The Daily Star  | English
Will the Buet protesters’ campaign see success?

Ban on student politics: Will Buet protesters’ campaign see success?

One cannot help but note the irony of a united campaign protesting against student politics when it is obvious that student politics is very much alive on the Buet campus

8h ago